Breaking News
Home / জেলা-উপজেলা / গোয়ালন্দে ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা নিচ্ছে বহনকারী

গোয়ালন্দে ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা নিচ্ছে বহনকারী

গোয়ালন্দে ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা নিচ্ছে বহনকারী।

শেখ মমিন
রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধিঃ

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলের সামনে থেকে ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ। এসময় স্বর্ণের বার বহনকারী বিপ্লব হোসেন (৩৫) পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা নিচ্ছে। বিপ্লব মানিকগঞ্জ জেলার সিঙ্গাইর উপজেলার গোবিন্দল গ্রামের ফরহাদ হোসেনের ছেলে।
রবিবার সকাল ১০টার দিকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কে দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলের সামনে দুইটি মটরসাইকেল মুখোমুখি সংর্ঘষ হয়। এসময় দুই মটরসাইকেল আরোহী বিপ্লব হোসেন (২৫) ও রেজাউল করিম শান্তু (২৮) কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। তবে স্থানীরা রাস্তায় পরে থাকা আহতদের জুতার মধ্যে স্বর্ণের বার দেখতে পায়। ওই জুতার মধ্যে থেকে স্বর্ণের বারগুলো উদ্ধার করে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশের কাছে দেয়।
এ ব্যাপরে বিপ্লব হোসেন স্বর্ণের বার বহনের কথা স্বীকার করে বলেন, এই স্বর্ণের মালিক ঢাকা তাঁতী বাজারের সুরঞ্জিতের। তবে আমি তাকে চিনি না। আমি সাগর নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২০টি স্বর্ণের বার নিয়ে তার নির্দেশে যশোর জসিম নামের এক ব্যক্তির কাছে মটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলাম। পথে মানিকগঞ্জ থেকে আমার বন্ধু ইসমাইল হোসেন কে সঙ্গে নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট অতিক্রম করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে, স্বর্ণের বার বহনকারী বিপ্লব হোসেন দাবি করেন, স্বর্ণের বার গুলো বৈধ কাগজপত্রের ভিত্তিতে বহন করা হচ্ছে। তবে আমি নিরাপত্তার জন্যে ওই স্বর্ণের বার গুলো জুতার মধ্যে বহন করেছিলাম।
এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রবিউল ইসলাম ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্বর্ণের বার বহনকারী বিপ্লব হোসেন বর্তমান পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা নিচ্ছে।

Check Also

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা গোলাম কিবরিয়া পলাশ, ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *