Breaking News
Home / রাজনীতি / ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস দখলদারিত্ব প্রতিহত করতে ঢাবির ১২ ছাত্রসংগঠনের একাট্টা ঘোষণা “

ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস দখলদারিত্ব প্রতিহত করতে ঢাবির ১২ ছাত্রসংগঠনের একাট্টা ঘোষণা “

“ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস দখলদারিত্ব প্রতিহত করতে ঢাবির ১২ ছাত্রসংগঠনের একাট্টা ঘোষণা 
অনলাইন ডেস্কঃ
সন্ত্রাস-দখলদারিত্বমুক্ত নিরাপদ ও গণতান্ত্রিক ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে ক্রিয়াশীল ১২টি ছাত্রসংগঠনের সমন্বয়ে ‘সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য’ নামে একটি নতুন ছাত্রজোট আত্মপ্রকাশ করেছে। জোট সংশ্লিষ্ট ছাত্রসংগঠনের নেতারা জানান, সন্ত্রাসী, সাম্প্রদায়িক ও স্বৈরাচারী শক্তির বিরুদ্ধে লড়বে এ ছাত্রজোট।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জোটের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন ১২টি ছাত্রসংগঠনের প্রতিনিধিরা।

জোটে থাকা সংগঠনগুলো হলো বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন (গণসংহতি আন্দোলন), বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন (বদরুদ্দীন উমর), সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট (বাসদ), সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট (মার্কসবাদী), বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী, বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলন, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, নাগরিক ছাত্র ঐক্য, স্বতন্ত্র জোট ও ছাত্র গণমঞ্চ৷

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘অতিসম্প্রতি ডাকসু ভবনে ঢুকে ভিপি নুরুল হক নুরসহ শিক্ষার্থীদের ওপর নৃশংস হামলা করা হয়েছে। হামলার দিন আমাদের নেতারা প্রক্টরকে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নৃশংসতা বন্ধে উদ্যোগী হওয়ার কথা বললে তিনি যথাসময়ে সেখানে উপস্থিত হননি বরং উল্টো ধমক দিয়ে কথা বলেছেন। তার এই আচরণে এটা স্পষ্ট করে যে, তিনি হামলাকারী মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের মদদদাতা এবং সহযোগীর ভূমিকা পালন করেছেন। অর্থাৎ ছাত্রদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত প্রক্টর দায়িত্ব পালনে চূড়ান্তভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। ক্যাম্পাসের নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি লাগানো হয়েছে, অথচ সেই সিসিটিভির ফুটেজ তিনি রক্ষা করতে পারেন না। উপরন্তু তিনি ইনিয়ে-বিনিয়ে হামলাকারীদের পক্ষে কথা বলার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এরকম একজন নিষ্ঠুর অমানবিক ব্যক্তি কোনোভাবেই প্রক্টরের পদে বহাল থাকতে পারেন না।

Check Also

সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী শোক

সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *