Breaking News
Home / পাঁচমিশালি / বীর পটিয়াকে বাঁচাতে সম্মিলিত নেতৃত্বের ভুমিকা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে – জাহাঙ্গীর মেম্বার

বীর পটিয়াকে বাঁচাতে সম্মিলিত নেতৃত্বের ভুমিকা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে – জাহাঙ্গীর মেম্বার

বীর পটিয়াকে বাঁচাতে সম্মিলিত নেতৃত্বের ভুমিকা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে – জাহাঙ্গীর মেম্বার

আসসালামু আলাইকুম/ নমস্কার

পটিয়াবাসী সকলকে আমার পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা। সকলকে লেখাটি পড়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।মঘের মুল্লক হতে যাচ্ছে কি পটিয়া?
“জনতার স্বাধীন বাংলাদেশ “বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ।
বঙ্গবন্ধু এবং লক্ষ শহীদের স্বপ্ন সোনার বাংলা গড়তে জননেত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছে। আঃলীগের সংবিধানে, বাংলাদেশ কে যে কোনো কিছুর বিনিময়ে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার অঙ্গীকার রয়েছে। সুলতান আহমদ  কুসুমপুরি, এস এম ইউসুফের মতো অনেক নেতার জন্ম এই পটিয়াতে। পটিয়া সন্ত্রাস, খুন চাদাবাজী ডাকাতি, গরুচুরি ধর্ষষ প্রতিদিনই হচ্ছে কোন না কোন জায়গায়। আমি আমার কথা বলি আমার একটা ছোট্ট ব্যবসা রয়েছে যা করোনার জন্য দীর্ঘ ৩ মাস বন্ধ ছিল। বর্তমান ১০ টা থেকে বিকেল ০৪ টা পর্যস্ত ব্যাবসা করছি বিক্রয় হচ্ছে পূর্বের ছেয়ে ১০ ভাগের ০২ ভাগ। কর্মচারির চায়ের বিল হবে বলে মনে করছি না।
আমার আর একটা ব্যবসা আছে ডেইরি ফার্ম যা গত তিন মাস দুধের চাহিদা না থাকায় ০৩ মাস লোকসান গুনেছি। বর্তমান একটু দুধের চাহিদা যাও হচ্ছে।
প্রতিদিন গরু ডাকাতি হচ্ছে।
গত ৭ দিন পূর্বে আমার খামারে ও দিয়েছে হানা।আপনাদের দোয়াই আল্লাহর রহমতে বেছে যাই।।

গত ১৫ দিনে দফায় দফায় ৭ টি গরু নিয়ে যায় আমার এলাকা থেকে ডাকাত দল। প্রশাসন কে জানালাম, আমার জানা মতে পুরো পটিয়াতে হচ্ছে প্রতিরাত্রে গরু ডাকাতি। ডাকাত দল পিকাপ  নিয়ে আসে গরু নিতে। আচ্ছা পিকাপ টা তো রাস্তা দিয়েই গরু নিয়ে যায়। কি প্রশাসনের চোখে একবার পড়েনাা?
যাক হতাশ হলাম, সিদ্ধান্ত নিলাম, খামার বন্ধ করে দেব। পানির দামে অনেক গরু বিক্রয় করে দিলাম।
আসলে কি এই পটিয়া মগের মুল্লুক হতে যাচ্ছে?
দেশরত্ন মানবতার মা যে ভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এই মূহুর্তে পটিয়ার যে অবস্হা, সত্যি টা আমি বলার চেষ্টা করছি মাত্র। মানবতার মা সোনার বাংলা গড়ার কারিগরদদের নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চায়। জননেত্রীর মূল উদ্দেশ্য বিশ্বের মাঝে বাঙালী জাতির ইতিহাস তুলে ধরা, জাতিকে উন্নত জীবন প্রদান করা,বাঙালী জাতিকে, মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গি, দূর্নীতি,ফরমালিন ইত্যাদি থেকে মুক্ত করা। সকল প্রকার অপরাধ ও অনিয়মে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়ন লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। যেহেতু জনতার জন্য জননেত্রী কাজ করছে। এই রাজনৈতিক দল বাংলার জনগণের। হে পটিয়াা বাসী।
পটিয়াতে কি এমন কেউ নেই? এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিবে?
বড় বড় নেতাদের কাছে আমার এই একটা প্রশ্ন!
ভাবুন একবার এই পটিয়াকে নিয়ে। আমি বা নিঃস্ব হয়ে রাস্তায় নামার সময় এসে যাচ্ছে। কিন্তু এই পটিয়াতে আমার মত আরো লক্ষ জন যে আছে!
পটিয়া কে নিয়ে একবার ভাবুন।
রাজনীতি থেকে কিছু পাওয়ার আশায় নয়,
রাজনীতি থেকে দেশ ও জাতিকে সোনার বাংলা উপহার দেওয়া আমার উদ্দেশ্য।
সবাই ভালো থাকবেন, আল্লাহ হাফেজ। দোয়া করবেন

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।।।

জাহাঙ্গীর মেম্বার,কুসুমপুরা ইউপি,

পটিয়া, চট্টগ্রাম

Check Also

সাবেক সাংসদ ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট সুলতানুল কবির চৌধুরীর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সাবেক সাংসদ ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট সুলতানুল কবির চৌধুরীর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী আজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *