Breaking News
Home / জেলা-উপজেলা / আনোয়ারায় স্কুলছাত্র আত্মহত্যার পিছনে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

আনোয়ারায় স্কুলছাত্র আত্মহত্যার পিছনে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

আনোয়ারায় স্কুলছাত্র আত্মহত্যার পিছনে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

মোঃওসমান গণি, আনোয়ারা প্রতিনিধিঃ

আনোয়ারা উপজেলার কৈনপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্র দুর্জয় দাশের (১৬) আত্মহত্যার পিছনে জড়িত ব্যক্তিদের দূষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে কৈনপুরা মহতরপাড়া এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার ( ৩ জুলাই) সকাল সাড়ে দশটার দিকে কৈনপুরা স্কুলের সামনে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়। পরে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি বিদ্যালয়ের সামনে থেকে শুরু করে মিয়ার হাট পর্যন্ত বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষীণ করে স্কুলের সামনে এসে শেষ হয়।

এর আগে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কৈনপুরা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুধাংশু চন্দ্র দেবনাথ ও স্কুল কমিটির সভাপতির গাফিলতি ও দায়িত্বহীনতার কারণে দুর্জয় দাশ তিন দিন ধরে চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্রসহ বিভিন্ন দপ্তরে দপ্তরে ঘুরেও একটি প্রত্যয়ন পত্রের জন্য জন্মনিবন্ধন সংশোধন ও জেএসসি পরীক্ষার রেজিট্রেশন করতে না পেরে গত সোমবার রাতে আত্মহত্যা করে। বয়স সংশোধনী প্রত্যয়ন পত্রের জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে বার বার গেলেও তিনি বয়স সংশোধন করে নতুন করে একটি প্রত্যয়নপত্র দেয়নি।

তারা বলেন, জেএসসি পরীক্ষার রেজিট্রশনের শেষ দিন হচ্ছে ৩ জুলাই। অথচ স্কুল থেকে প্রধান শিক্ষক সুধাংশু চন্দ্র দেবনাথ ও কেরানী অনুপম রায় বলেছেন রেজিট্রশনের শেষ দিন ৩০ তারিখ। স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে হেনস্তার শিকার হয়েও রেজিট্রেশন করতে না পেরে দুর্জয় দাশ আত্মহত্যা করে। দুর্জয়ের আত্মহত্যার পরও স্কুলের কোন শিক্ষক এবং স্কুল কমিটির কোন সদস্য এখনো পর্যন্ত তার পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানানোর জন্যও আসেনি। এসময় বক্তারা দুর্জয়ের আত্মহত্যার পিছনে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। এবং দুর্জয়ের মত আর কোন শিক্ষার্থীকে যেন ঝড়ে পড়তে না হয় সেজন্য মানববন্ধন থেকে কৈনপুরা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুধাংশু চন্দ্র দেবনাথ ও স্কুল কমিটির সভাপতি রঘুপতি সেনকে অপসারণের দাবি জানানো হয়। এবং এ বিষয়ে আনোয়ারার-কর্ণফুলির সংসদ সদস্য ও ভূমি মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
মানববন্ধন শেষে স্কুল প্রতিষ্ঠাতা পরিবারের পক্ষ থেকে নিহত দুর্জয় দাশের পিতার হাতে নগদ পাঁচ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন দুর্জয় দাশের পিতা মিলন দাশ, কৈনপুরা সচেতন সংঘের সভাপতি সুরজিত দত্ত সৈকত, স্কুল প্রতিষ্ঠাতার নাতি ভাস্কর দত্ত, কৈনপুরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি প্রণদশ দত্ত, দুর্জয় দাশের সহপাঠি শান্ত দাশ , নন্দন ঘোষ, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মোঃ মহিউদ্দিন, মোঃ রাশেদ, অনন্ত দাশ, বজ্রহরি দাশ, মিশু দাশ, শীপন, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

Check Also

পটিয়ার সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী    সাবেক মেয়র শামশু মাষ্টার   রংপুর সিটি মেয়র মোস্তফার রোগ মুক্তির দোয়া চেয়ে   আহবান 

পটিয়ার সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী    সাবেক মেয়র শামশু মাষ্টার   রংপুর সিটি মেয়র মোস্তফার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *