Breaking News
Home / স্বাস্থ্য কথা / গাইবান্ধার সড়ক দূর্ঘটনায় আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মান্নান আর নেই

গাইবান্ধার সড়ক দূর্ঘটনায় আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মান্নান আর নেই

গাইবান্ধার সড়ক দূর্ঘটনায় আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মান্নান আর নেই

আমিরুল ইসলাম কবির,
বিশেষ প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বিশিষ্ট ঠিকাদার সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান মন্ডল(৭৫) ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রজেউন)।

তিনি শনিবার ভোর রাত তিনটার দিকে পৌর শহরের সাথী সিনেমা হল সংলগ্ন নিজ বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিক পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

আজ শনিবার বাদ যোহর পলাশবাড়ী এসএম মডেল পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সরকারি বিধি মোতাবেক নিরাপদ সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিদের উপস্থিতিতে মরহমের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

এরআগে মরহুমের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে।
এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দায়ীত্বপ্রাপ্ত প্রশাসক মো.কামরু- জ্জামান নযনের নেতৃত্বে থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান মাসুদ,সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুর রহমান, পরিবার বর্গের সদস্য ও সহযোদ্ধা ছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে।
শেষে মরহুমের শেষ ইচ্ছে মোতাবেক পলাশবাড়ী পৌর শহরের ঘোড়াঘাট সড়কে ইউনিয়ন কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হবে।

তাঁর মৃত্যুতে উপজেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক,সামাজিক সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবি সংগঠনসহ স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ছাড়াও শোকাভিভূত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে পৃথক বিবৃতি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, তিনি গত ২৪ জুলাই দুপুরে শহরের নিজ বাসা থেকে বেরিয়ে সড়কের পাশ ঘেঁষে তার গন্তব্যে যাচ্ছিলেন। স্থানটিতে আগে থেকেই সড়কের পাশে স্থানীয় চামড়া ব্যবসায়ি আজাদ মিয়ার মালিকানাধীন লবণের বস্তা সমূহ খালাসের অপেক্ষায় ট্রাকটি দাঁড়িয়ে ছিল।
বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান ট্রাকটির পাশদিয়ে যাবার প্রাক্কালে ঘটনার আকস্মিকতায় কাকতালীয় ট্রাকটির সাইডের ডালা খোলা মাত্রই ভারী ডালাটি তার মাথায় সজোরে আঘাত করে। এসময় তিনি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে তাঁকে পলাশবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়। পরবর্তিতে অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওইদিনই তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে এক সপ্তাহ চিকিৎসার একপর্যায় ৩০ জুলাই তাঁকে পলাশবাড়ী শহরের নিজ বাসায় নেয়া হয়। ৩১ জুলাই শুক্রবার রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিক তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে রাত ৩টা নাগাদ তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
মৃত্যুকালে তিনি ছেলে-মেয়ে,
স্ত্রী,জামাতা,সহযোদ্ধা,
আত্মীয়স্বজন-পাড়াপ্রতিবেশি ও শুভাকাঙ্খীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।√#

Check Also

বাজারে জ্বর-সর্দি-কাশির ওষুধ সংকটঃ চরম ভোগান্তি সেবা নিতে আসা রোগীদের 

বাজারে জ্বর-সর্দি-কাশির ওষুধ সংকটঃ চরম ভোগান্তি সেবা নিতে আসা রোগীদের  … সেলিম চৌধুরীব স্টাফ রিপোর্টার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *