Breaking News
Home / এক্সক্লুসিভ / মোটর বাইক শোডাউন ভাইরাল- নুর আলম সিদ্দিকী

মোটর বাইক শোডাউন ভাইরাল- নুর আলম সিদ্দিকী

মোটর বাইক শোডাউন ভাইরাল- নুর আলম সিদ্দিকী

গত কয়েকদিন আগে দেশের উত্তরাঞ্চলে একজন নারী তার স্বপ্ন পূরণে মোটর বাইক নিয়ে নিজের মেহেদি অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে শোডাউন করলেন যেটি দেশব্যাপী সমাজিক মাধ্যেমে ভাইরালে ঝড় উঠলো।

এই নিয়ে নানানজন নানারকম সমাজিক ও গণমাধ্যমে মন্তব্য করেছেন….
আমার ব্যাক্তিগত মতামত আসলে এটি এভাবে টিক হয় নি। কারন মোটর বাইক চালানো আমাদের দেশে যে আইন রয়েছে সেই আইন তিনি লংঘন করেছেন। তার মাথায় হেলমেড ছিলো না এবং শোডাউন করাটা ও আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ ছিলো।

পুরুষ বাইক চলাইতে পারবেন নারীরা পরবেন না সেটি আমাদের দেশের আইনের বাধ্যবাধকতা নেই।
যে কেউ বাইক চলাতে পারবেন কিন্তুু যদি মেয়েটি মাথায় হেলমেড পরিহিত থাকতো তাহলে এতো সমলোচনা করা সুযোগ থাকতো না।

উল্ল্যেখ অনেক লোক এটাকে কেন্দ্র করে মেয়েটির ব্যাক্তিগত চারিত্রিক নষ্টামি আজেবাজে মন্তব্য করেছেন সেটিও টিক হয় নি। যারা করেছেন তাদের নিজের চরিত্র টিক আছে কিনা আমার সন্দেহ হয়।

মেয়েটি অন্যায় করতে পারে কিন্তুু সমাজিক মাধ্যমে এভাবে তার চারিত্রিক পারিবারিক সমাজিক হেয়োপনা করার কারো অধিকার নেই।

রবীন্দ্রনাথ যতার্থ বলেছেনঃ
হে মুগ্ধ জননী রেখেছো বাঙালি করে মানুষ করোনি!!
আমরা কবে হবো মানুষ তাও এখনো সঠিক জানা নেই।

একজন মানুষের Dream থাকতে পারে সেটা তো দোষের কিছু দেকছিনা কিন্তুু তাকে এভাবে সমাজিক মাধ্যমে অশালীন ভাষায় মন্তব্য করা মেনে নেওয়া যায় না। যারা এধরনের কুরুচিপূর্ণ ভাষা ব্যবহার করেছেন তাদের প্রতি ঘৃণা ও তীব্র নিন্দা জানাই।

যারা ধর্মের দোহায় দিচ্ছেন তাদের বলি আপনি কতটুকু কোরান হাদিস মেনে চলছেন? ধরে নিলাম কোরান হাদিস মেনেই চলছেন তাহলে কোথাও কি আল্লাহ এবং রাসূল নির্দেশ করেছেন তার সৃষ্টির মানুষকে অপমান করার বা অশালীন ভাষায় মন্তব্য করার? ইসলাম সম্পর্কে ভালোভাবে জানেন এবং বুঝেন তারপর মন্তব্য করুন।

আপনারা সহজ এবং ছোট বিষয়টাকে কেনোই বা বিশাল আকার ধারণ করলেন। আপনাদের উদ্যেশ্য তো মেয়েটির মোটরবাইক চালানো সেটি না উদ্যেশ্য তো অন্যটা যেটা দেশের সচেতন এবং শিক্ষিত নাগরিকরা বুঝে নিয়েছেন।

আমার Analysis থেকে বলছি বিষয়টা মোটর বাইক বা মেয়েটি ছিলো না, বিষয়টা ছিলো রাষ্ট্রের প্রধান নারী এবং বঙ্গবন্ধু সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এইজন্য চুলকানিটা বেশী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশ পরিচালনাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার একটা অপকৌশল।

সমালোচকরা রাষ্ট্রের জনগনকে বুঝাতে চেয়েছিলেন এদেশের ইসলামকে ধ্বংস করার পায়তারা করছে নারী সমাজ এভাবে পর্দাবিহীন রাস্তায় মোটরবাইক নিয়ে শোউডাউন দিচ্চেন। অর্থাৎ আমাদের দেশ রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম এটাকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী ইসলামিক Minded নাগরিকদের চোখে একটা ষড়যন্ত্রে রাজনীতি করার অপচেষ্টা।

নারীরা হচ্ছেন “মা” জাতি তাদের প্রতি আমদের শ্রদ্ধা ও সন্মানবোধ থাকার প্রয়োজন মনে করি। স্বয়ং আল্লাহ রাসূল তাদের সন্মান দিয়েছেন মা বোন প্রত্যেকের আছে এমন কোনো আচরণ করা টিক হবে না যেটি মা জাতির সন্মানের উপর আঘাত আসতে পারে। ভুলত্রুটি থাকতে পারে শোধরানোর জন্য তাদের প্রতি আমাদের আবেদন এবং নিবেদন থাকবে কিন্তুু অশালীন কুরুচিপূর্ণ ভাষা ব্যবহার করে তাদের সন্মানের উপর আঘাত হানার আমাদের কাহারো উচিৎ নই।
আমার একান্ত ভাবনা থেকে…!!

লেখকঃ

সভাপতি,

পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী যুবলীগ   

Check Also

জননেত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে “খোলা চিঠি”- সৈয়দ নুরুল আবছার

জননেত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে “খোলা চিঠি”- সৈয়দ নুরুল আবছার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, ১৮ কোটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *