Breaking News
Home / অপরাধ / সিগারেট ও খুন্তির ছেঁকার যন্ত্রণায় হাসপাতলে ছটফট করছে গৃহবুধ শিউলি

সিগারেট ও খুন্তির ছেঁকার যন্ত্রণায় হাসপাতলে ছটফট করছে গৃহবুধ শিউলি

সিগারেট ও খুন্তির ছেঁকার যন্ত্রণায় হাসপাতলে ছটফট করছে গৃহবুধ শিউলি

আমিরুল ইসলাম কবির,
বিশেষ প্রতিনিধিঃ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় যৌতুকের দায়ে শিউলী বেগম (২২) নামের এক গৃহবধূর শরীরে জ্বলন্ত সিগারেট ও গরম খুন্তির ছেঁকা দিয়েছে তার স্বামী এবং শ্বশুর-শ্বাশুরী।

মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অছে নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ।

এর আগে রোববার রাতে পীরগঞ্জ উপজেলার জাহাঙ্গীরাবাদ ইউনিয়নের মোজাফফরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সাদুল্লাপুর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের উত্তর ফরিদপুর গ্রামের ফেরদৌস মিয়ার মেয়ে শিউলী বেগমকে ৩ বছর আগে মোজাফফরপুর গ্রামের ফয়জার রহমানের ছেলে বিপুল মিয়া ওরফে রিমুর সঙ্গে বিয়ে হয় শিউলীর। এসময় মেয়ের সুখের সংসারের জন্য লক্ষাধিক টাকাসহ বিভিন্ন আসবাপত্র উপহার হিসেবে দেন পিতা ফেরদৌস। এরপর শিউলী বেগমের সংসার জীবন কিছুমাস ভালোই যাচ্ছিলো। বিধিবাম, বছর খানেক পর স্বামী রিমু মিয়া আবারও শিউলীর কাছে মোটা অংকের যৌতুক দাবি করে। তার এ দাবি পুরণ করতে না পারায় প্রায়ই শিউলীর উপর নেমে আসে অমানসিক নির্যাতন।

এরই ধারাবাহিকতায় রোববার রাতে স্বামী রিমু মিয়া যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী শিউলীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে জ্বলন্ত সিগারেট ও গরম খুন্তি দিয়ে ছেঁকা দেয়। এসময় শ্বশুর ফয়জার রহমান ও শাশুরী রিনা বেগম উত্তেজীত হয়ে শিউলীকে হত্যার চেষ্টায় বেধরক মারপিটও করা করে। এতে সজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে শিউলী বেগম।

খবর পেয়ে শিউলীর পিত্রালয়ের স্বজনরা সোমবার সকালে শিউলীকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। হাসপাতালের বেডে শারীরিক যন্ত্রণায় ছটফট করছে শিউলী বেগম।

সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহীনুল আলম বলেন, শিউলীর শারীরিক অবস্থা এখনো উন্নতি হয়নি। তাকে সুস্থ করতে সুচিকিৎসা অব্যাহত রয়েছে।√#

Check Also

দৌলতদিয়া ঘাটে ইয়াবা ব্যবসায়ী নারী ও পুরুষ গ্রেফতার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

দৌলতদিয়া ঘাটে ইয়াবা ব্যবসায়ী নারী ও পুরুষ গ্রেফতার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ। শাকিল মোল্লা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *