1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
অবুঝ শিশু'র হার্টে ছিদ্র, সন্তানকে বাঁচাতে মায়ের আকুতি - DeshBarta
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
দক্ষিণ জেলা জাপা উদ্যােগে সংবিধান সংরক্ষণ দিবস পালন ফাঁকা মাঠে গোল দিতে দেব না, খেলতে যখন নেমেছেন দুই দলই খেলবে-নৌ মন্ত্রী কৃষ্ণা বিশ্বাস ও জ‍্যোতি রাণী পালকে বেআইনিভাবে চাকরিচ্যুত করায় উদ্বেগ জানান AWRCF এর মহাসচিব মুহাম্মদ আলী ইতিহাস৭১ ম্যাগাজিনের মোড়ক উম্মোচন করলেন সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী ইতিহাস৭১ ম্যাগাজিনের মোড়ক উম্মোচন করলেন সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী দিরাইয়ে আলহাজ্ব মাসুক মিয়া কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকদের আচরণে উদ্বিগ্ন মানবাধিকার কর্মীগণ ভৈরবে লিও ডে অনুষ্টিত চন্দনাইশে জহিরুল ইসলাম বাচার পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুল জব্বার চৌধুরী আল্লামা আমিনুর রহমানের জানাজা সম্পন্ন

অবুঝ শিশু’র হার্টে ছিদ্র, সন্তানকে বাঁচাতে মায়ের আকুতি

  • সময় শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৫ পঠিত

আমিরুল ইসলাম কবিরঃ

অবুঝ শিশু সিনহা জন্মের পর থেকেই অসুস্থ । এখন তার বয়স ১১ মাস। বড় হতে হতে সে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে। এক সময় ধরা পড়ে,তার হার্টে ছিদ্র আছে। এর জন্যই অসুস্থ্ সিনহা।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মেডিসিন নয়,সুস্থ হতে সিনহার অপারেশন করতে হবে। যার জন্য প্রায় ৩ লাখ টাকা খরচ হবে।

ইতিমধ্যেই সন্তানের জন্য মানুষের দ্বারে হাত পেতে বেশ কিছু টাকা খরচ করেছেন দরিদ্র মা। তার পক্ষে তিন লাখ টাকা জোগাড় করা কখনই সম্ভব নয়, বরং দুঃস্বপ্ন। এমনিতেই ওষুধ কেনাসহ সিনহার চিকিৎসায় খরচ চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে।

এ অবস্থায় সন্তানকে বাঁচাতে মা ফেন্সি আক্তার সমাজের বিত্তবান ও সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

ফেন্সি আক্তার বলেন,সিনহা গাইবান্ধার পলাশবাড়ী পৌর এলাকার ছোট শিমুলতলা গ্রামের কৃষক সিরাজুল ইসলামের মেয়ে। প্রায় ১০ বছর পূর্বে বিয়ে হলেও এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান জন্ম নেয়ার পরে পুনরায় তিনি আর একটি বিয়ে করেন ৷ বর্তমানে ২য় স্ত্রী’কে নিয়ে প্রথম স্ত্রী সন্তানের কোন খোঁজ খবর না নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে পলাতক ও গা ঢাকা দিয়েছে ৷ সে প্রথম স্ত্রী ফেন্সির নিকট থাকা অবস্থায় স্থানীয় কিছু দাদন ব্যবসায়ীর নিকট ধার দেনা ও ২য় বিয়ে করে প্রায় ১ বছর ধরে পালিয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত তার কোন খোঁজ খবর নাই। বর্তমানে মানুষের বাসায় কাজ করে ফেন্সি জীবন জীবিকা চালায় । এই টাকা দিয়ে তার নিজেরই চলতে কষ্ট হয়। এরপর শিশু বাচ্চার ঔষধ কেনা ও চিকিৎসার খরচ যোগান তার জন্য একেবারে দুরুহ । এই পরিস্থিতিতে মেয়ের চিকিৎসার খরচ চালানো তার পক্ষে দুঃস্বপ্নের মতো।

তিনি জানান,জন্মের কিছুদিন পরই সিনহার জ্বর দেখা দেয়। তখন স্থানীয় শিশু চিকিৎসক ডা.আব্দুল মালেক (এমবিবিএস) এর ব্যবস্থাপত্রে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়। কিন্তু তাতেও ভালো না হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে হৃদরোগ বিভাগে ভর্তি করা হয়।

পরে পরীক্ষা~নিরীক্ষা করে হৃদরোগ বিভাগের কনসালটেন্ট কার্ডিওলোজিস্ট ডা.আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান,সিনহার হার্টে ছিদ্র আছে (Situs Solitus Levocardia- Two ASD’s flow was seen)। যত দ্রুত সম্ভব তার অপারেশন করতে হবে।

ফেন্সি বলেন,ইতিমধ্যে এগার মাস শেষ হয়ে গেছে। এখন আমার মেয়েটিকে নিয়ে খুবই দুশ্চিন্তা হচ্ছে। আমার মেয়েটিকে বাঁচানোর জন্য সরকার ও সমাজের বিত্তবানদের আর্থিক সহযোগিতা প্রয়োজন। সবাই আমার মেয়েটিকে বাঁচানোর জন্য সাহায্য করবেন।

সাহায্য পাঠানোর জন্য-
হিসাবের নাম: মোছাঃ ফেন্সি আকতার (সিনহার মা),হিসাব নম্বর- ০১০০১৩৮৩২০৮৬৮, জনতা ব্যাংক,পলাশবাড়ী শাখা, গাইবান্ধা অথবা নগদ একাউন্ট- ০১৭২৪~০৮৬৪২৩

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD