1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে ৫ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি বই নিলামে নয় ছয় - DeshBarta
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
পটিয়া ৯৪ এর ফ্যামিলি মিলন মেলা ও মেজবান উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত খালিয়াজুরীতে ৯ই ডিসেম্বর বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিল শিশু আয়াত হত‍্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান – বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশন দুমকি উপজেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল। গামছা পলাশ ও দিপা’র নতুন গান ‘চক্ষু দুটি কাজলকালো’ চট্টগ্রাম সিটি একাডেমি স্কুলের ক্লাস পার্টি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন  ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তৃণমূলে প্রতিষ্ঠায় নির্মূল কমিটির অবদান অনস্বীকার্য’ বাঁশখালী সম্মেলনে ড.সেকান্দর চৌধুরী দাকোপ রিপোর্টার্স ক্লাবের উপ নির্বাচনে কোষাধ্যক্ষ পদে অরুপ সরকার নির্বাচিত। মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে মসজিদে বয়স্কদের কোরআন শিক্ষা কোর্সের উদ্ভোধন মরহুম নুরুল ইসলাম ডিসি ফুটবল একাদশ ৩-১ গোলে জয়ী

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে ৫ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি বই নিলামে নয় ছয়

  • সময় মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৬৩ পঠিত

আমিরুল ইসলাম কবিরঃ

গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুরে মাধ্যমিক পর্যায়ের সরকারি পুরাতন বই গোপন নিলামে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

চলতি বাজার দর অনুযায়ীএসব বইয়ের বাজার মূল্য ৫ লক্ষাধিক টাকার বেশি হবে বলে সচেতন মহলের ধারণা।
তবে বইগুলো নামমাত্র মুল্যে গোপনে নিলামে সাড়ে ২৭ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে এ ধারনা সচেতন মহলের।

রোববার দুপুরে গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদের সাব-রেজিস্ট্রার অফিস ভবনের স্টোর রুম থেকে বইগুলো ট্রাক ভর্তি করার সময় ঘটনাটি প্রকাশ পায়।

খবর পেয়ে সত্যতা জানতে ঘটনাস্থলে গেলে দেখা যায়, ১০/১২ জন শ্রমিক গুদাম থেকে পুরাতন বইগুলো ট্রাক ভর্তি করছেন। জানতে চাইলে বই নিতে আসা দুই ব্যববসায়ী জানান,২০১৬ থেকে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের পুরাতন বই ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকায় নিলামে কিনেছেন। তাদের ভাষ্যমতে, গত ১৬ জানুয়ারি নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে শহরের দিশা ট্রেডার্সের কাছে ৩/৪টি গুদামের সংরক্ষিত বইগুলো বিক্রির সিদ্ধান্ত হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ৩/৪টি গুদামে মাধ্যমিক পর্যায়ের পুরনো বিভিন্ন শিক্ষা বর্ষের বিপুল পরিমাণ বই মজুদ আছে। এসব বইয়ের বাজার মূল্য ৫ লক্ষাধিক টাকা। কিন্তু নিলামে নয় ছয় করা হয়েছে।

স্থানীয়সহ অনেক অভিভাবকই বলছেন,গোপন চুক্তিতে বই বিক্রি করায় সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হলেও পকেট ভারি হয়েছে শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল ইসলামের।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে অফিসে গিয়েও পাওয়া যায়নি সাদুল্লাপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল ইসলামকে।
তবে মুঠফোনে তিনি বলেন,গত ১৬ জানুয়ারি তিনটি গুদামের সংরক্ষিত বই বিক্রির নিলামে ৫ জন দরদাতা অংশ নেয়। পরে সর্ব্বোচ্চ দরদাতার কাছে ১০ টাকা কেজি দরে মোট সাড়ে ২৭ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়।

এসব বই বিক্রির বিষয়ে ভিন্ন কথা বলছেন সাদুল্লাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোছাঃ রোকসানা বেগম। তিনি বলেন,মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পুরাতন বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের বইগুলো ২৫ হাজার টাকায় বিক্রির কথা জানান। এ নিয়ে বিভিন্নভাবে তার কাছে নানা অভিযোগও আসে।√#

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD