1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
দুমকিতে ভুয়া ওয়ারিশে মালিক সাজিয়ে জাল দলিলের মাধ্যমে জমি দখলের পাঁয়তারা - DeshBarta
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এস আলম গ্রুপের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত চক্রান্ত খতিয়ে দেখতে সরকার ও দুদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি মাওলানা ফখরুল ইসলাম ছাহেবের মৃত্যুতে হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকীর শোক প্রকাশ রাশিয়ার নিষিদ্ধ সংগঠনের তালিকায় যুক্ত হলো মেটা অনন্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন বাবা চাঙ্কি পান্ডে বিশ্বের সবচেয়ে সরু বহুতল৷ যার উচ্চতা ১৪২৮ ফুট ডিসেম্বর থেকে ফেসবুক প্রোফাইলে দেখা যাবে না ইউজারদের এই তিনটি তথ্য প্রশিক্ষিত চিলের সাহায্যে শত্রুদেশের ড্রোন দমনের পরিকল্পনা ভারতের জেগে উঠতে পারে সাইবেরিয়ার ভয়ঙ্কর ‘জম্বি ভাইরাস’ আর্জেন্টিনা হেরে যাওয়া মানেই সব না: নায়িকা নতূন ফ্রান্সে রেকর্ড উষ্ণতম বছর ২০২২

দুমকিতে ভুয়া ওয়ারিশে মালিক সাজিয়ে জাল দলিলের মাধ্যমে জমি দখলের পাঁয়তারা

  • সময় সোমবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৩৫ পঠিত

দুমকি, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: দুমকিতে ভুয়া ওয়ারিশ সার্টিফিকেট দাখিলার মাধ্যমে ভুয়া মালিক সাজিয়ে কবলা দলিল ও একটি ভুয়া নিলাম দেখিয়ে দানপত্র দলিলের মাধ্যমে জমি দখলের পাঁয়তারা কতিপয় ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে। রবিবার সন্ধ্যায় দুমকি প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে এসব অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। সাংবাদিক সম্মেলনে পৃথক দুটি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ হাবিবুর রহমান ও মোঃ আল আমিন, তারা লিখিত বক্তব্যে বলেন, দুমকি নিবাসী রহম আলী মৃধা, হাজী ফয়জর আলী মৃধা, ফতুজান বিবি, দুমকি মৌজার জেএল নং ২৪ খতিয়ান নং ৫৬৩,৫৬৪,৫৬৬ও৫৬৭ নিলাম সূত্রে মালিক। মোকাম পটুয়াখালী সার্টিফিকেট আদালতের ১৪৯৬,১৫১১,১৫১৫ও১৫২৬ পি,কে ৫৫-৫৬ নং নিলাম মূলে মালিক নিযুক্ত থাকিয়া মালিকগণ নিজ নিজ নামে১৯৬৬সালে মিউটেশন এর মাধ্যমে নিজ নামে রেকর্ড সংশোধন করিয়াছেন। উক্ত মালিকদের মৃত্যুর পর তাদের ওয়ারিশ গন নিজ নিজ নামে রেকর্ড সংশোধন করিয়াছেন। এবং একই মৌজার ৫৬৮ নং খতিয়ানে মোঃ আবুল হোসেন মালিক নিযুক্ত থাকায় উক্ত সম্পত্তি তার স্ত্রী জাহানারা বেগমের নামে হস্তান্তর করেন, জাহানারা বেগম পরবর্তীতে নাসিমা বেগম স্বামী মোঃ আমির হোসেন এর নিকট বিক্রি করেন। নাসিমা বেগম নিজ নামে রেকর্ড সংশোধন করেন। অপরদিকে একই মৌজায় ৫৪২,৫৫২নং খতিয়ানে রহম আলি মৃধা, হাজী ফজর আলী মৃধা, মোহন আলী হাওলাদার, মোঞ্জেদ আলী হাওলাদার এর রেকর্ডিয় মালিক। আর,এস ১৯৩,২৯২ নং খতিয়ানে উল্লিখিত চারজনই রেকর্ডিয় মালিক ছিলেন। উক্ত খতিয়ান সমুহ কবলা সূত্রে মালিক। উক্ত মালিক গনের মৃত্যুর পর তাদের ওয়ারিশ গন এবং কবলা গৃহিতা গন নিজ নিজ নামে রেকর্ড সংশোধন করিয়া অধিকাংশ জমিতে বহুতল ভবন, বাড়ি ঘর নির্মাণ করিয়া বহু বছর যাবৎ বসবাস করিতেছে এবং কিছু জমিতে দোকান উত্তোলন করিয়া ব্যবসা-বাণিজ্য ও কিছু জমি চাষাবাদ করিয়া আসিতেছে এবং জমির মালিকগন নিয়মিত খাজনা পরিশোধ করিয়া আসিতেছে।
কিন্তু গত ২০১৮ইং তারিখ দুমকির শ্রীরামপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল আলম মৃধ্যা কতৃক কার্তিক চন্দ্র শীল, লক্ষণ চন্দ্র শীল, মিনাল চন্দ্র শীল নামে একখানা ভুয়া ওয়ারিশ সার্টিফিকেট এর মাধ্যমে এবং ৫৯-৬০ সনে ১২০নং পি,কে তালেম মাতুব্বর পিতা জান্নাত মাতব্বর নামে একটি ভুয়া নিলামের কাগজপত্র তৈরি করিয়া কয়েকটি ভূয়া দলিলের মাধ্যমে এলাকার ভূমিদস্যু মোঃ হারুন-অর-রশিদ, মোঃজসিম উদ্দিন বাদল,মোনাসেফ হাওলাদার, রফিকুল ইসলাম, মোঃ আবু হানিফ,মোঃ বিপ্লব আকন,মাছুম মৃধ্যা, মোঃ নাসির মৃধ্যা,নুর জাহান, সেতারা বেগম, রুহুল আমিন প্যাদা,মোঃ বেল্লাল হোসেন সহ কতিপয় দুষ্কৃতকারী উক্ত জমি দখলের পাঁয়তারা করছে। আমরা আপনাদের মাধ্যমে সরকারের কাছে এর সুষ্ঠু তদন্ত এবং এর বিচার চাই। এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন, মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ আল আমিন ও মোঃ আমির হোসেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD