1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় হুমকি,উদ্বেগ-উৎকষ্ঠার মধ্যদিয়ে আগামী বুধবার বোয়ালখালীতে ইউপি ভোট গ্রহন। - DeshBarta
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এস আলম গ্রুপের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত চক্রান্ত খতিয়ে দেখতে সরকার ও দুদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি মাওলানা ফখরুল ইসলাম ছাহেবের মৃত্যুতে হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকীর শোক প্রকাশ রাশিয়ার নিষিদ্ধ সংগঠনের তালিকায় যুক্ত হলো মেটা অনন্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন বাবা চাঙ্কি পান্ডে বিশ্বের সবচেয়ে সরু বহুতল৷ যার উচ্চতা ১৪২৮ ফুট ডিসেম্বর থেকে ফেসবুক প্রোফাইলে দেখা যাবে না ইউজারদের এই তিনটি তথ্য প্রশিক্ষিত চিলের সাহায্যে শত্রুদেশের ড্রোন দমনের পরিকল্পনা ভারতের জেগে উঠতে পারে সাইবেরিয়ার ভয়ঙ্কর ‘জম্বি ভাইরাস’ আর্জেন্টিনা হেরে যাওয়া মানেই সব না: নায়িকা নতূন ফ্রান্সে রেকর্ড উষ্ণতম বছর ২০২২

নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় হুমকি,উদ্বেগ-উৎকষ্ঠার মধ্যদিয়ে আগামী বুধবার বোয়ালখালীতে ইউপি ভোট গ্রহন।

  • সময় মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৭৬ পঠিত

[চট্টগ্রামপ্রতিনিধি]

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) উদ্বেগ-উৎকষ্ঠার মধ্যদিয়ে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শেষ। হুমকি, ভয়ভীতি প্রদর্শন ও গ্রেপ্তার আতংকের মধ্যে দিয়ে (৩রা জানুয়ারি) রাত ৮টায় প্রচারণা শেষ করেছেন প্রার্থীরা। আগামীকাল ৫ই জানুয়ারি বুধবার ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এই নির্বাচনে উপজেলার ৭টি ইউপিতে ২৫জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এর মধ্যে ৪ ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগের ৪ বিদ্রোহী প্রার্থী।

দলীয় শৃংখলা রক্ষার্থে দল থেকে বিদ্রোহীদের বস্কিার করা হয়েছে। এরপরও বিদ্রোহীদের দমানো যায়নি। বরং শক্ত অবস্থানে থেকে নির্বাচনী কর্মকান্ড চালিয়ে গেছেন তারা।
এবারও বোয়ালখালী থেকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন পুরাতন।

পুলিশ বিভিন্ন প্রার্থীর নির্বাচন প্রচার -প্রচারণাকালীন সময়ে কর্মী সমর্থক কে বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় গ্রেপ্তার আতংক বিরাজ করছে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতেও রাতে থানা পুলিশ একাধিকবার অভিযান চালিয়েছেন বলে ১০নং করলডেঙ্গার চেয়ারম্যান হামিদুল হক মন্নান জানান।

স্থানীয় সাংসদ মোছলেম উদ্দিন আহমদ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচনী এলাকায় নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে বলে স্বতন্র প্রার্থীদের অভিযোগ।

শাকপুরা ইউপিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর সাথে মোকাবিলা করতে হচ্ছে নৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান মোনাফকে। এখানে বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মো. গিয়াস উদ্দীন। সারোয়াতলী ইউপিতে নৌকা নিয়ে লড়ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান বেলাল হোসেন। তার বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সদস্য মুক্তিযোদ্ধা এএমএম ইউছুপ চৌধুরী। চরণদ্বীপ ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান পেয়েছেন নৌকা প্রতীক। আনারস প্রতীক নিয়ে তার প্রতিপক্ষ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক মো. নুরুল আমিন খান। শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউপিতে নৌকা প্রতীকে আবারো লড়ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকারম। তার প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জমির উদ্দীন।

জানা গেছে, পোপাদিয়া, আমুচিয়া ও আহলা করলডেঙ্গা ইউপিতে আওয়ামী লীগের কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই। পোপাদিয়া ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান এসএম জসিম উদ্দীন নৌকা প্রতীকে মাঠে রয়েছেন। তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী বাবু দাশ। আমুচিয়া ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান কাজল দে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) মনোনীত কাস্তে প্রতীকের প্রার্থী অনুপম বড়ুয়া পারুর সাথে। ১০নং আহল্লা-করলডেঙ্গা ইউপিতে নৌকা প্রতীক পেয়েছেন মনসুর আহাম্মদ বাবুল। তিনি প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হামিদুল হক মান্নান এর বিপক্ষে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD