1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
ফেরেশতারা কোথায় থাকেন। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী। - DeshBarta
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পটিয়ায় সমাজসেবক নিপুর চৌধুরীর উদ্যোগে হতদরিদ্র শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ পটিয়ায় মহিরা গ্রামের তরুন সমাজকর্মী জুয়েল সরকার এর অকাল মৃত্যুতে শোকসভা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কাজী মোহাম্মদ সেলিমের মাতা’র ইন্তেকাল প্রেমের টানে কিশোর কিশোরী পালানোর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে. সংসারের হাল ধরতে অটোরিকশা চালায় শিশু জিসান সিএসটিআই ক্যাম্পাসে চপই, বিকেটিটিসি ও এমটিটিসি শিক্ষক মন্ডলীগনের অংশগ্রহনে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন এক্সল প্রপার্টি লিমিটেড ও এসএসসি ৯৪ ব্যাচ এর মধ্যে আবাসন খাতে যৌথ চুক্তি স্বাক্ষর। ইউনিয়ন অফ এসএসসি ৯৪ বাংলাদেশ গ্রুপের হাঁস পার্টি আয়োজন ৭০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে শুরু হচ্ছে দুই মেগাপ্রকল্পের কাজ বলিউডে অভিষেকের আগেই নতুন প্রস্তাব শেহনাজকে

ফেরেশতারা কোথায় থাকেন। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী।

  • সময় শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২
  • ৮০ পঠিত

হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী:সৃষ্টিজগৎ পরিচালনা করতে মহান আল্লাহ অসংখ্য অগণিত ফেরেশতা সৃষ্টি করেছেন। প্রশ্ন হলো এত ফেরেশতা থাকেন কোথায়? আহলুস সুন্নাহ ওয়াল জামাতের বিশ্বাস হলো, আসমান ফেরেশতাদের সাধারণ আবাস। সাধারণত ফেরেশতারা আসমানেই থাকেন। কিন্তু আল্লাহ প্রদত্ত দায়িত্ব পালন করতে তারা আসমান ত্যাগ করে অন্যত্রও অবস্থান করেন।

আল্লামা ইবনে হাজার আস্কালানি (রহ.) বলেন, ফেরেশতারা সূক্ষ্ম শরীরের অধিকারী। তাদের বিভিন্ন আকৃতি ধারণের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। তাদের বাসস্থান আসমানে। (ফাতহুল বারি : ৬/৩০৬)
অসংখ্য হাদিসের বর্ণনা থেকেও বোঝা যায়, আসমান ফেরেশতাদের সাধারণ আবাস। রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যখন তোমাদের কেউ আমিন বলে, আর ফেরেশতারাও আকাশে আমিন বলেন, তখন যদি একটির সঙ্গে অপরটির মিল হয় তবে তার পূর্বের পাপ ক্ষমা করা হয়। ’ (সুনানে নাসায়ি, হাদিস : ৯৩০)

তিনি আরো বলেন, ‘আল্লাহ তাআলা যখন আসমানে কোনো নির্দেশ জারি করেন, ফেরেশতারা তাঁর নির্দেশের প্রতি বিনয় ও আনুগত্য প্রকাশের জন্য স্বীয় পাখাগুলো হেলাতে থাকেন। তাদের পাখা হেলানোর শব্দটি যেন পাথরের ওপর শিকলের ঝনঝনির ধ্বনি। ’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৭৪৮১)

ফেরেশতারা আসমানেই থাকেন এবং সেখানেই তাদের দৈনন্দিন দায়িত্ব বণ্টিত হয়। অতঃপর সেখানেই তারা তা নিয়ে আলোচনা করেন। আয়েশা (রা.) বলেন, তিনি আল্লাহর রাসুল (সা.)-কে বলতে শুনেছেন যে ফেরেশতামণ্ডলী মেঘমালার আড়ালে অবতরণ করেন এবং আকাশের ফায়সালাগুলো আলোচনা করেন। (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৩২১০)

তবে আসমানে ফেরেশতা অনর্থক কোনো সময় কাটায় না; বরং তারা সর্বক্ষণ আল্লাহর ইবাদত ও আনুগত্যের মধ্যে থাকেন। আল্লামা ইবনে কাসির (রহ.) বলেন, ‘সাত আসমানের এমন কোনো স্থান নেই যেখানে ফেরেশতারা নেই। তারা সেখানে বিভিন্ন ধরনের ইবাদতে মগ্ন থাকেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ সর্বক্ষণ কিয়াম অবস্থায় থাকেন, কেউ কেউ সর্বদা রুকু অবস্থায় থাকেন আবার কেউ কেউ সব সময় সিজদারত থাকেন। এ ছাড়া তারা বহু রকম ইবাদতে মগ্ন থাকেন। তাদের প্রকৃত অবস্থা মহান আল্লাহই ভালো জানেন। ’ (আল-বিদায়া ওয়ান-নিহায়া : ১/৯৬)

আল্লামা ইবনে হাজার আস্কালানি (রহ.) বলেন, ফেরেশতারা সূক্ষ্ম শরীরের অধিকারী। তাদের বিভিন্ন আকৃতি ধারণের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। তাদের বাসস্থান আসমানে। (ফাতহুল বারি : ৬/৩০৬)

আসমানে ফেরেশতাদের বাসস্থান কেমন—এমন প্রশ্নের উত্তরে আল্লামা সুয়ুতি (রহ.) বলেন, ‘আসমানগুলো ফেরেশতাদের বাসস্থান। তাদের বাসস্থানগুলো পৃথিবীর উত্তম ও নান্দনিক বাগানের তুল্য। ’ (আল-হাবায়িক ফি আখবারিল মালায়িক, পৃষ্ঠা ২১৩)

লেখকঃ বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ লেখক ও কলামিস্ট হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী ছাহেব।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD