1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
ভূমিকম্পে হেলে পড়েছে চট্টগ্রামের ২টি বহুতল ভবন - DeshBarta
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
পটিয়ায় সমাজসেবক নিপুর চৌধুরীর উদ্যোগে হতদরিদ্র শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ পটিয়ায় মহিরা গ্রামের তরুন সমাজকর্মী জুয়েল সরকার এর অকাল মৃত্যুতে শোকসভা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কাজী মোহাম্মদ সেলিমের মাতা’র ইন্তেকাল প্রেমের টানে কিশোর কিশোরী পালানোর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে. সংসারের হাল ধরতে অটোরিকশা চালায় শিশু জিসান সিএসটিআই ক্যাম্পাসে চপই, বিকেটিটিসি ও এমটিটিসি শিক্ষক মন্ডলীগনের অংশগ্রহনে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন এক্সল প্রপার্টি লিমিটেড ও এসএসসি ৯৪ ব্যাচ এর মধ্যে আবাসন খাতে যৌথ চুক্তি স্বাক্ষর। ইউনিয়ন অফ এসএসসি ৯৪ বাংলাদেশ গ্রুপের হাঁস পার্টি আয়োজন ৭০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে শুরু হচ্ছে দুই মেগাপ্রকল্পের কাজ বলিউডে অভিষেকের আগেই নতুন প্রস্তাব শেহনাজকে

ভূমিকম্পে হেলে পড়েছে চট্টগ্রামের ২টি বহুতল ভবন

  • সময় শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ৯৮ পঠিত

ইসমাইল চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর

ভূমিকম্পে চট্টগ্রাম নগরীর চকবাজার এলাকার উর্দু গলি ও খাজা রোডের সাবানঘাটা এলাকায় ২টি ভবন হেলে পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) ভোরে শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর নগরে এ ২টি ভবন হেলে পড়ে।

তবে রাঙ্গুনিয়াসহ বিভিন্ন উপজেলায় বেশ কয়েকটি মাটির ঘরের দেয়াল ভেঙে পড়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ছাড়া জরাজীর্ণ কিছু ভবন ও সীমানা প্রাচীরে ফাটল দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে এ ভূ-কম্পন অনুভূত হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল মিয়ানমারের চিন রাজ্যের রাজধানী হাখা শহরের ২০ কিলোমিটার উত্তর উত্তর-পশ্চিমে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনাইটেড স্টেটস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস) ও আর্থকোয়াকট্র্যাকার ডটকম জানায়, বাংলাদেশের স্থানীয় সময় ৫টা ৪৫ মিনিটের এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.৮।

সূত্র জানায়, সকালের ভূমিকম্পে চট্টগ্রাম নগরের উর্দু গলিতে ‘রহমান ভিলা’ নামে একটি চারতলা ভবন পাশের পাঁচতলা ভবনে হেলে পড়ে।

আর খাজা সড়কের সাবানঘাটা এলাকায় চারতলা ভবন হেলে পড়েছে পাশের সমান উচ্চতার আরেকটি ভবনের ওপর। হেলে পড়া ভবনের বাসিন্দারা উদ্বেগ-উৎকন্ঠার মধ্যে বসবাস করছে। তবে ভবন মালিকদের দাবি এগুলো আগে থেকেই এমনটি ছিল।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস বলেন, নগরের দু’টি এলাকায় ভবন হেলে পড়ার খবর পেয়েছি। ফায়ার সার্ভিস ও সিডিএ’র টিম ভবনগুলো পরিদর্শন করছে। খাজা রোডের চারতলা ভবনটি একটু হেলে পড়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আমাদের টিমের সদস্যরা। চকবাজারের ভবনটি পরিদর্শন করে টিম এখনো রিপোর্ট দেয়নি।

তিনি জানান, আগামীকাল শনিবার ফাইনালি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যদি ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচিত হয় তবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে (চসিক) ভবন ভাঙার জন্য চিঠি দেওয়া হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD