1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News Editor : News Editor
“সবুজ আন্দোলন” ৪র্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিপর্যয় রোধে করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত - DeshBarta
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০১:১০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
পটিয়া ৯৪ এর ফ্যামিলি মিলন মেলা ও মেজবান উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত খালিয়াজুরীতে ৯ই ডিসেম্বর বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিল শিশু আয়াত হত‍্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান – বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশন দুমকি উপজেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল। গামছা পলাশ ও দিপা’র নতুন গান ‘চক্ষু দুটি কাজলকালো’ চট্টগ্রাম সিটি একাডেমি স্কুলের ক্লাস পার্টি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন  ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তৃণমূলে প্রতিষ্ঠায় নির্মূল কমিটির অবদান অনস্বীকার্য’ বাঁশখালী সম্মেলনে ড.সেকান্দর চৌধুরী দাকোপ রিপোর্টার্স ক্লাবের উপ নির্বাচনে কোষাধ্যক্ষ পদে অরুপ সরকার নির্বাচিত। মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে মসজিদে বয়স্কদের কোরআন শিক্ষা কোর্সের উদ্ভোধন মরহুম নুরুল ইসলাম ডিসি ফুটবল একাদশ ৩-১ গোলে জয়ী

“সবুজ আন্দোলন” ৪র্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিপর্যয় রোধে করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

  • সময় রবিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৩৮ পঠিত

পরিবেশবাদী সংগঠন “সবুজ আন্দোলন” জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যোগে শনিবার ৩ সেপ্টেম্বর সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে “সবুজ আন্দোলন” এর ৪র্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও চট্টগ্রামের পরিবেশ বিপর্যয় রোধে করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ নুরুল কবির এর সঞ্চালনায় “সবুজ আন্দোলন” এর কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সহ-শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন “সবুজ আন্দোলন” এর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান বাপ্পি সরদার।

প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাজী হুমায়ুন কবির।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা করতে পুরোপুরি ব্যর্থ। বিগত সময়ে সাবেক মেয়ররা চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা নিরসনে ব্যর্থ হওয়ায় জনপ্রিয়তা হারিয়েছে। বর্তমানে চট্টগ্রামে ৩২০ টি ইটভাটা রয়েছে। তার মধ্যে অধিকাংশই অবৈধ। নির্বিচারে পাহাড় কর্তন, নদীর দখল ও দূষণ, ভঙ্গুর ড্রেনেজ ব্যবস্থা, জাহাজ ভাঙার ফলে পানি দূষণ, পলিথিনের ব্যবহার বৃদ্ধি, সুবজায়ন ধ্বংস, বায়ু ও শব্দ দূষণ, বর্তমানে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ নির্মাণ চট্টগ্রামের পরিবেশ বিপর্যয়ের প্রধান কারণ। পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ থাকলেও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন সঠিক ভাবে কাজ করতে ব্যর্থ।

প্রধান আলোচক বলেন, হালদা নদী রক্ষা করতে আমাদেরকে দীর্ঘদিন সংগ্রাম করতে হয়েছে যার ফলশ্রুতিতে বর্তমানে বঙ্গবন্ধু হেরিটেজ পার্ক হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। আমাদের সকলকে আধুনিক ও সবুজ বেষ্টনীর চট্টগ্রাম গড়তে কাজ করতে হবে। চট্টগ্রামের প্রত্যেকটি খালকে পুনরুদ্ধার করে জলবদ্ধতা নিরূপণ করতে হবে। সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্প বাতিল করতে আহ্বান জানাচ্ছি। চট্টগ্রামের পরিবেশ সমুন্নত রাখতে সরকারের উদ্যোগে গবেষণা জোরদার করতে হবে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু মোহাম্মদ হাশেম, সহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং উত্তর জেলার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার রফিকুল ইসলাম, চট্টগ্রাম উত্তর জেলার উপদেষ্টা সহকারী অধ্যাপক রেহায়েত করিম বাবুল, চট্টগ্রাম মহানগর উপদেষ্টা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ সাদেক, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মুহাম্মদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ।

 

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার শহিদুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার মোরশেদুল হক বাবুল, চট্টগ্রাম মহানগরের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তসলিম হাসান হৃদয়, কেন্দ্রীয় নারী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক জোসনা আক্তার মুন্নি, মহানগরের সাংগঠনিক সাদ্দাম হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক রক্সি জাহান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছৈয়্যদ ইয়াছিন, সীতাকুণ্ডের সমন্বয়কারী মোঃ সাইফুল ইসলাম প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD