1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
পটিয়ায় বহু অপকর্মে হোতা স্ত্রীর মামলায় জেল হাজতে  - DeshBarta
রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বিশ্বকাপ ২০২২ ফুটবলের বাছাইপর্ব ম্যাচে কাতারের কাছে ৫-০ গোলে বাংলাদেশের হার হাটহাজারীতে চোরাই কাঠ সহ গাড়ি জব্দ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে হালিশহর থানা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ। কেরানী হাটের পথসভায় কেন্দ্রীয় কৃষক লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক । পটিয়ায় যদি কেউ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ষড়যন্ত্র করতে চায় তাদের কে কঠোর হস্তে দমন করা হবে- হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি। হাটহাজারীতে বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে প্রাণ হারিয়েছেন দুই কৃষক গাইবান্ধার পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ হবে। —নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। চট্রগ্রামে বাঁশখালী প্রেস ক্লাবের মতবিনিময় সভায় ২৫ বছর পু‌র্তি উৎসব উদযাপ‌নের সিদ্ধান্ত রামুর কচ্ছপিয়া নোমান চেয়ারম্যান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন ১৮ নং পূর্ব বাকলিয়া ওয়ার্ডে আসন্ন চসিক নির্বাচনের মতবিনিময় সভা।

পটিয়ায় বহু অপকর্মে হোতা স্ত্রীর মামলায় জেল হাজতে 

  • সময় বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪৪৩ পঠিত

সেলিম চৌধুরী,  রিপোর্টারঃ- চট্টগ্রামে পটিয়ায় বহু অপকর্মে হোতা স্ত্রীর নারী নির্য়াতন মামলায়  মোঃ ইউনুসকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে    পুলিশ। ১১ নভেম্বর বুধবার সন্ধ্যায় পটিয়া থানার এস আই আক্কাস গোফন সংবাদে ভিত্তিতে অভিয়ান চালিয়ে ছবুর রোড় থেকে মোঃ ইউনুস কে গ্রেফতার করে। মামলার এজাহার সুএে জানাযায়, ৩০ মার্চ ১৯ ইং পটিয়া উপজেলার কুসুমপুরা গ্রামের ইলিয়াছ খাঁ নিবাসী নুরুল ইসলামের পুত্র মো. ইউনুছের সাথে উপজেলার দক্ষিণ ছনহরা গ্রামের নুরুল আলমের কন্যা নাছরিন সুলতানার সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী ইউনুছ সপরিবারে পটিয়া পৌর সদরের ৯নং ওয়ার্ডের লায়লা ভিলা নামক ভাড়া বাসায় চলে আসেন। সেখানে বিভিন্ন অজুহাতে যৌতুক দাবি করে স্বামী ইউনুছ নাছরিনকে নির্যাতন চালিয়ে আসছিলেন। এমনকি ইউনুছের শারীরিক মানসিক   নির্য়াতন ও মারধরে কারণে নাছরিন সুলতানা ছিল অতিষ্টত। এর মধ্যে গাড়ি ক্রয়ের জন্য ৫ লাখ টাকা নাছরিনকে তার বাপের বাড়ি থেকে এনে দিতে বলেন। এই বিষয় নিয়ে গত ২২ জুলাই ১৯ ইং  নাছরিনকে তার স্বামী মারধর করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা জখম করার পর একটি রুমে আটকিয়ে রাখেন। এই খবর পেয়ে নাছরিন সুলতানার পিতা নুরুল আলম পটিয়া থানাকে জানালে থানার এস.আই আকতার হোসেন একদল পুলিশ নিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে নাছরিন সুলতানা বাদি হয়ে গত ৫ আগস্ট  ১৯ ইংং  চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যাল  আদালতে একটি মামলা নং ২৩০/১৯ ইং দায়ের করেন।  উক্ত মামলা টেকাতে চতুর ইউনুস স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্রসহ ৮ লক্ষ টাকার মালামাল লুটপাটের  ভিত্তিহীন   অভিযোগ এনে পটিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সি.আর ২৭৩/১৯ একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ তদন্তে এর সত্যিতা পায়নি বলে রিপোর্ট প্রদান করে।পটিয়া থানার এস আই আকতার হোসেন জানান, গত ২২ জুলাই নাছরিন সুলতানাকে তার স্বামী ইউনুছের বাসা থেকে উদ্ধার করে তার পিতার হাতে তুলে দেওয়া হয় বলে  বিষয়টি নিশ্চিত করেন।   এস আই আক্কাস জানান,  নাছরিন সুলতানার নারী নির্য়াতন ও যৌতুক   মামলায় ওয়ারেন্ট আসামি মোঃ ইউনুস কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সে দীর্ঘদিন পলাতক থেকে বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত। এ বিষয়ে পুলিশ তদন্ত অব্যহত রয়েছে বলে জানান।

 

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD