1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
আমিরাতে ভিসা চক্রের দালাল'রা সবাই সক্রিয়। দেশ এবং প্রবাসের সকলেই সাবধান - DeshBarta
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট (চপই) ছাত্রদলের দোয়া মাহফিল” দুমকিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ করোনার দুর্দিনে ক্ষুধার্ত মানুষের জন্য মাসব্যাপী বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার সোসাইটি ইফতার আয়োজন যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামকে রেড ক্রিসেন্ট সিটি ইউনিটের অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান ২২ এপ্রিল থেকে মার্কেট ও দোকানপাট খুলে দেওয়ার দাবি দোকান মালিক সমিতির কবিতাঃ “মাহে রমজান ” মোঃ জসীম উদ্দিন চৌধুরী গ্রেফতার হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হক বাঁশখালীর কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের হত্যা কান্ডের সাথে এস আলম গ্রুপ দায়ী নয়, মাফিয়া সিণ্ডিকেট-ই দায়ী। শ্রমিকের পারিশ্রমিক (মজুরি) তার ঘাম শুকানোর পূর্বে দিয়ে দাও”— মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) চিত্র নায়ক ওয়াসিম আর নেই।

আমিরাতে ভিসা চক্রের দালাল’রা সবাই সক্রিয়। দেশ এবং প্রবাসের সকলেই সাবধান

  • সময় সোমবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৫৩ পঠিত

সম্প্রতি আরব আমিরাতের কিছু দালাল চক্র দেশ থেকে অসহায় দরিদ্র পরিবারের সন্তানদের যেভাবে লোভনীয় কাজের অফার দিয়ে ভিজিট ভিসায় নিয়ে আসার মহা কর্মযজ্ঞ পরিকল্পনা অব্যাহত রেখেছে। অচীরেই তাদের ভাগ্যে কি ঘটতে যাচ্ছে সেটা সময়ই বলে দেবে। এই সমস্ত দালালচক্র সামান্য কিছু মুনাফার জন্য শত শত পরিবারকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। তাই সবার কাছে অনুরোধ করব চার-পাঁচ লক্ষ থেকে ৮ লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ করে প্রবাসে না এসে দেশে কিছু করার চেষ্টা করুন।একদম কিছু করতে না পারলে ও একটি খামার করার চেষ্টা করুন কৃষিজাত উদ্যোক্তা হিসেবে স্বল্প পুঁজিতে দেশের মাটিতে কিছু করার জন্য উদ্যোগী হন। আমিরাতে যাদের ১০/২০ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা আছে সে সমস্ত লোক গুলোও অনেকে এখন বর্তমানে বেকার অবস্থায় পড়ে আছে। তারা বিভিন্ন সোশ্যাল সাইটে একটি কাজের জন্য আকুতি জানাচ্ছে। বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে প্রত্যেকটা দেশ প্রত্যেকটা মানুষ কোন না কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেক্ষেত্রে ভিজিট ভিসায় এসে একজন নতুন সাধারণ শ্রমিক বিপুল অঙ্কের টাকা ব্যয় করে কি অর্জনের আশা করবেন বোধগম্য নয়। এই ভয়াবহ অবস্থার মধ্যেও ভিজিট ভিসার কিছু অসাধু ব্যবসায়ী দেশের সাধারণ মানুষের পকেট কাটার লালসায় নতুন চলচাতুরিতে ব্যস্ত। আমি আশা করব যাদের পরিবারের কেউ আমিরাতে আছেন শুধু মাত্র তারাই ভিজিট ভিসায় পদ্ধতি গুলো জেনে আসবেন নিশ্চয়ই তাঁর নিজ পরিবারের কাউকে মহাবিপদে ফেলার কথা না। এরপরে হোক সে ফেরেশতা সম কোন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান ভিজিট ভিসার চাকুরীর লোভনীয় অফারকে কর্ণপাত করবেন না। আপনার সিদ্ধান্তের একটু ভুলের জন্য আপনার জীবন নরক কুন্ডলীর দুর্বিষহ বাকি জীবন কাটাতে হবে। প্রবাসে অবস্থানরত আমাদের দেশের কিছু জঘন্য ব্যক্তি নিজ ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য মানুষকে হুমকির মুখে ফেলে দিচ্ছে। তেমনি দেশকে আরব আমিরাতের মত বৃহত্তম শ্রম বাজারের চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ও ভাবমূর্তি ধুলিস্যাৎ করার পাঁয়তারা করে চলছে। এই অসাধু লোক গুলোর কিছুদিন আগেও তাদের কোন ঠিকানা ছিল না। তারা ছিল যাযাবর ফুটপাথে পথে-প্রান্তরে ঘুরে বেড়ানো কর্মহীন মানব। এখন তাদের কাজ অসৎ উপায়ে ভিজিট ভিসা দালালী করা। এ কাজের সফলতা হিসেবে অনেকে হয়েছেন কোটিপতি। তারা এখানে বিভিন্ন নামে বেনামে ওয়ান টাইম দোকানপাট মেয়াদোত্তীর্ণ ঠিকাদারী কোম্পানি, নামসর্বস্ব অফিস স্থাপন করে ভিসা দালালিতে ব্যস্ত। ইতিপূর্বে আপনারা জেনেছেন আরব আমিরাতের একটি অঞ্চলে অগনিত ভিজিট ভিসাধারী অভুক্ত মানুষ খোলা আকাশের নিচে জঙ্গলে দিনযাপন করে আসছিল।জন শ্রুতি আছে এইসব দালালদের মুলচক্র আমিরাতের আজমান থেকে কার্য পরিচালনা করে থাকে। বিভিন্ন উপশহর কেন্দ্রিক জনবল নিয়ে তাদের ব্যবসা পরিচালনা করে। ভিজিট ভিসা বিজনেস পার্টনার কোম্পানিতে কাম পাইয়ে দেওয়ার ফলশ্রুতিতে তারা একটি মানবতাবিরোধী অসৎ স্বর্গরাজ্য পরিচালিত করে আসছে দীর্ঘদিন যাবত। দিনে দিনে এই চক্রের গতি প্রগতি বিস্তৃত হয়েছে। এদের সাথে জড়িত আছে কমিউনিটির কিছু অসাধু ব্যক্তিবর্গ মূলত তারা অন্তরাল থেকে তাদেরকে প্রভাবিত করে। দেশ থেকে ভিজিট ভিসা কে কাজের শ্রম ভিসা লাগানোর ফলশ্রুতিতে বিপুল মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এই দালাল চক্র। সাধারণত দেশের নিরীহ মানুষেরা এসব দালালদের খপ্পরে পড়ে যায়। জানা গেছে অনেকে ৫ লক্ষ থেকে ৮ আট লক্ষ টাকা খরচ করে আমিরাতে এসে অভুক্ত থাকতে হচ্ছে তাদের এখন অনিশ্চয়তার জীবন। ভিসা আছে কাজ নেই। কাজ আছে টাকা নেই।সাময়িকভাবে দালাল চক্র হয়ে যায় নিরুদ্দেশ। শ্রম পরিপন্থী কাজের জন্য ভুক্তভোগী কে কারাভোগ করতে হয় জেল থেকে সর্বস্ব খুইয়ে দেশে ফিরতে হয় একটি মাত্র পরনের কাপড় পরে। একজন ভুক্তভোগী যখনই এ দালাল চক্রের প্রায়শ্চিত্ত করতে চায় তখন জীবন থেকে অনেকগুলো বসন্ত মুল্যবান সময় চলে গেছে। বাংলাদেশের এবং বাংলাদেশের শ্রমিকের ভাবমূর্তি রক্ষায় সংযুক্ত আরব আমিরাতে নব নিযুক্ত মান্যবর রাষ্ট্রদূত এসব দালাল চক্রের বিরুদ্ধে অনতিবিলম্বে যথাযথ পদক্ষেপ নিবেন বলে আশা রাখছি।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD