1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
যে ফল কাঁচা খাওয়া যায় না - DeshBarta
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৫:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
গাইবান্ধার পলাশবাড়ী‌তে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পাল‌ন ২৩ জুন বুধবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ওষুধের দোকান ব্যতীত সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রাত ৮টার পর বন্ধ থাকবে এসডিজি অর্জনে তিন দেশের অন্যতম বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনা ঃ চট্টগ্রাম নগরীতে কড়াকড়ি, লকডাউনে ফটিকছড়ি রফিক চৌধুরীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে বিমান বন্দরে নগর জাসাস এর উষ্ণ সম্বর্ধনা আন্দোলন সংগ্রামের দল আওয়ামী লীগ সুন্দর বাংলাদেশ গঠনে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে -তসলিম উদ্দিন রানা দুমকির ৩ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত, নৌকার প্রার্থীদের জয় শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পিডিইপি-৪ প্রকল্পের দেড় লক্ষ টাকা আত্মসাতের গোমর ফাঁস। কামরুজ্জামান রাব্বির ‘ভালোবাসার ভেদপরিচয়’ বদলী হওয়ার ৬ দিনেও দায়িত্ব হস্থান্তর করেননি শিক্ষা অফিসার আব্দুস ছালাম।

যে ফল কাঁচা খাওয়া যায় না

  • সময় বুধবার, ২৬ মে, ২০২১
  • ৪৯ পঠিত

জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী চন্দনাইশ প্রতিনিধি:

আতা ফলটি প্রায় বিলুপ্তির পথে। আগে যেভাবে হাটে বাজারে পাওয়া যেত, এখন সেভাবে আর পরিলক্ষিত হয় না।এর মোট ৭টি জাত আছে। এ ফল বাংলাদেশের সব জেলায় উৎপাদিত হয় । ইহা এমন একটি ফল যা কখনো কাঁচা খাওয়া যায় না।পাকলে খুব সুস্বাদু হয়। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। এছাড়া এতে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস আছে।
ইহা আমাদের দেহের হাড় ও দাঁত গঠনে কার্যকরি ভূমিকা পালন করে। অ্যানোনেসি পরিবারভূক্ত এই ফলটি একেক জায়গায় একেক নামে পরিচিতি রয়েছে। কেউ কেউ এটাকে সীতাফল, রামফল, লক্ষণফল বা হনুমানফল নামে ডাকে। সাধারণত সেপ্টেম্বর মাসে ফলটি পাকে। এ ফলের বীজযে ফল কাঁচা খাওয়া যায় না
আতা ফলটি প্রায় বিলুপ্তির পথে। আগে যেভাবে হাটে বাজারে পাওয়া যেত, এখন সেভাবে আর পরিলক্ষিত হয় না।এর মোট ৭টি জাত আছে। এ ফল বাংলাদেশের সব জেলায় উৎপাদিত হয় । ইহা এমন একটি ফল যা কখনো কাঁচা খাওয়া যায় না।পাকলে খুব সুস্বাদু হয়। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। এছাড়া এতে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস আছে।
ইহা আমাদের দেহের হাড় ও দাঁত গঠনে কার্যকরি ভূমিকা পালন করে। অ্যানোনেসি পরিবারভূক্ত এই ফলটি একেক জায়গায় একেক নামে পরিচিতি রয়েছে। কেউ কেউ এটাকে সীতাফল, রামফল, লক্ষণফল বা হনুমানফল নামে ডাকে। সাধারণত সেপ্টেম্বর মাসে ফলটি পাকে। এ ফলের বীজ খাওয়া যায় না। কারণ এর বীজ খুব বিষাক্ত। আতা গাছের পাতা কীট নাশক হিসেবে ব্যবহার হয়। বাংলা ভাষায় আতা নিয়ে যে ছড়াটি আছে তা শিশুদের অনেকখানি আনন্দ দেয়। খাওয়া যায় না। কারণ এর বীজ খুব বিষাক্ত। আতা গাছের পাতা কীট নাশক হিসেবে ব্যবহার হয়। বাংলা ভাষায় আতা নিয়ে যে ছড়াটি আছে তা শিশুদের অনেকখানি আনন্দ দেয়।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD