1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
একাদশ বাংলাদেশ রসায়ন অলিম্পিয়াড" চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত - DeshBarta
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৭:৫০ অপরাহ্ন

একাদশ বাংলাদেশ রসায়ন অলিম্পিয়াড” চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত

  • সময় শনিবার, ৯ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭২ পঠিত

ইসমাইল চৌধুরী, চট্টগ্রামের মহানগর প্রতিনিধি

“একাদশ বাংলাদেশ রসায়ন অলিম্পিয়াড-২০২০” চূড়ান্ত পর্ব গত শুক্রবার (৮ অক্টোবর, ২০২১ ইং) ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ রসায়ন সমিতি কর্তৃক আয়োজিত প্রতিযোগিতাটি সকাল ১০ টা থেকে শুরু করেন চলে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত। এতে সারাদেশ থেকে বাছাইকৃত ৩ শতাধিক প্রতিযোগী অংশ নেয়।

এসব তথ্য জানিয়েছেন “একাদশ বাংলাদেশ রসায়ন অলিম্পিয়াড-২০২০” জাতীয় কমিটির আহবায়ক প্রফেসর নূ ক ম আকবর হোসেন। তিনি জানান, বিগত ২৭ আগষ্ট, ২০২১ ইং সারাদেশে একযোগে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সারাদেশ থেকে অংশ নেয় প্রায় ২ হাজার ১ শত জন শিক্ষার্থী। সেখান থেকে বাছাইকৃত ৩০৪ জন আজ চূড়ান্ত পর্বের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেয়। করোনা মহামারীর কারণে প্রতিযোগিতাটি ভার্চুয়ালী অনুষ্ঠিত হয়। ফলাফল প্রকাশ করা হবে ১৫ অক্টোবরের মধ্যে। পরীক্ষার সার্বিক কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করা হয় চট্টগ্রাম হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের আইসিটি ল্যাব থেকে। এবারের অলিম্পিয়াডের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন বাংলাদেশ রসায়ন সমিতি, চট্টগ্রাম অঞ্চল।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রসায়ন অলিম্পিয়াডে একাদশ/দ্বাদশ এবং ও/এ লেভেলের শিক্ষার্থীরাই কেবল অংশগ্রহণ করতে পারবে। সিলেবাসও একই। একাদশ/দ্বাদশ এবং ও/এ লেভেলের সিলেবাস।

আয়োজক কমিটির আহবায়ক জানান, এবারের লিখিত পরীক্ষায় ৫০ থেকে ৬০ জনকে বাঁচাই করা হবে। বাঁচাইকৃতদের দফায় দফায় ট্রেনিং এবং পরীক্ষা নিয়ে সবশেষে ৪ জনই চূড়ান্ত বাঁচাইপর্বে উত্তীর্ণ হবে। এই ৪ জনই অবশেষে “আন্তর্জাতিক রসায়ন অলিম্পিয়াডে” অংশ নেয়ার সুযোগ পাবে। এটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী বছর জুলাই মাসে চীনে।

তিনি আরও জানান,
এই লক্ষ্যে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সমন্বয় এটি সাংগঠনিক কমিটি গঠন করা হয়। অলিম্পিয়াডের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সম্পৃক্ত ছিলেন, সাংগঠনিক কমিটির প্রধান উপদেষ্টা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর বেনু কুমার দে, কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক -প্রফেসর মোঃ নুরুল আনোয়ার, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডঃ মু. ইদ্রিস আলী, প্রফেসর ডঃ মোঃ হেলাল উদ্দিন (চ বি), প্রফেসর ডঃ মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন সিদ্দিকী (চ বি ); পরীক্ষা উপ-কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ডক্টর কনক কুমার বড়ুয়া (চট্টগ্রাম কলেজ), রেজিস্ট্রেশন ও আইসিটি কমিটির আহ্বায়ক ডঃ মোঃ রেয়াজুল হক (চট্টগ্রাম কলেজ), ডঃ একেএম শামছু উদ্দীন আজাদ (চট্টগ্রাম কলেজ)।

পরীক্ষা পরিচালনা ও পর্যবেক্ষণ এর দায়িত্বে ছিলেন সরকারি কলেজের 12 জন দক্ষ শিক্ষক। যথাক্রমে – ডঃ মোঃ রেয়াজুল হক ( চট্টগ্রাম কলেজ), জনাব আকরাম হোসেন ( সরকারি সিটি কলেজ চট্টগ্রাম), জনাব আরাফাত আরা ( চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজ), জনাব সৈয়দ মোহাম্মদ মঞ্জুরুল করিম ( হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ চট্টগ্রাম), জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ( হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ চট্টগ্রাম), ডঃ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ( লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ), জনাব রেজিয়া বেগম ( চট্টগ্রাম কলেজ), জনাব মোঃ ছাইফুর রহমান ( চট্টগ্রাম কলেজ), জনাব আকরাম হোসেন (চট্টগ্রাম কলেজ), জনাব আবু ছৈয়দ মোঃ মুজিব ( চট্টগ্রাম কলেজ), জনাব তাপস কান্তি দে (সরকারি সিটি কলেজ, চট্টগ্রাম), জনাব কিরিটি দত্ত (সরকারি সিটি কলেজ, চট্টগ্রাম)।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD