1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
কোলাগাঁও ইউনিয়ন ও এলাকাবাসীর জন্য নিঃস্বার্থে কাজ করেছি এবং করবো ভবিষ্যতেও= হাজী মাহাবুবুল হক চৌধুরী - DeshBarta
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
জোবায়েত হাসান পটিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনোনীত রাউজানে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা সপ্তাহ ‘২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বন‍্যাদুর্গতদের মাঝে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের ত্রাণ বিতরণ মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত কাতার প্রবাসী। চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির জরুরী সভায় আবুল হাশেম বক্কর। দুমকিতে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও আনন্দ মিছিল ২১ খালের ও ১১ প্রকল্প নিয়ে চসিক মেয়রের মন্তব্য। নেত্রকোণা জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে খালিয়াজুরীতে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চন্দনাইশে ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বীজ-সার বিতরণ চন্দনাইশে মাদকের অপব্যবহার ও পাচাররোধে র‌্যালী-আলোচনা সভা

কোলাগাঁও ইউনিয়ন ও এলাকাবাসীর জন্য নিঃস্বার্থে কাজ করেছি এবং করবো ভবিষ্যতেও= হাজী মাহাবুবুল হক চৌধুরী

  • সময় বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৬৯ পঠিত

আল্লাহ মহান। আমার প্রানের কোলাগাঁও ইউনিয়ন সকল জনসাধারণের প্রতি আমার সালাম, আদব, গ্রহন করবেন। অনেক ইচ্ছা ছিল কোলাগাঁও ইউনিয়নের জনগনের সেবক হব। অবহেলিত জনগনের সেবা করব। যাক আমাকে আপনারা দোয়া করবেন। আপনাদের ভালবাসায়, আমি যতদিন বেঁচে থাকব। ততদিন আপনাদের সুখে দুঃখে থাকব। ইনশাআল্লাহ। দীর্ঘ ১০ বছর মানুষের সুখে দুঃখে ছিলাম। কোন স্বার্থ ছিল না। শুধু একটা ইচ্ছা ছিল অবহেলিত মানুষের জন্য কিছু করা। আমার নমিনীশনের ব্যাপারে সব টিক ছিল,তৃণমূলের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের সুপারিশ, ৯টি ওয়ার্ড় আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের সাক্ষর, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের সাক্ষর, জেলা আওয়ামীলীগের সম্মানিত সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের সাক্ষর, আমার প্রিয় নেতা আমার অভিভাবক মাননীয় হুইপ আলহাজ্ব সামশুল হক চৌধুরী এম পি মহোদয়ের একক প্রার্থী ঘোষণা। এবং আমার প্রানের প্রিয় সংগঠন যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ সহ প্রিয় ভাইয়েরা ও জনগনের ভালবাসার কোন কমতি ছিল না। কিন্তু আমার ভাগ্য আমাকে হার মানিয়েছে। কারো ভালবাসা কমতি ছিল না। কিছু কিছু মানুষ আমার সহজ সরল মনে অনেক আঘাত দিয়েছে। হুইপ মহোদয়ের একক প্রার্থী হওয়াতে অনেকের শয্যা হয়নি। আমি কি দোষ করিছিলাম আপনাদের। আজ আমি বাস্তব বাদী। কঠিন সময়ে কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রতিক নৌকার পক্ষে, তবে আমার কোলাগাঁও ইউনিয়নের জনগণের সাথে যিনি দীর্ঘ ৫ বছর বিছিন্ন ছিল, তার বিপক্ষে আমার অবস্হান থাকবে। কারন হুইপ মহোদয় গতবার যখন আমাকে নমিনেশন দেয়নি, তখন কোলাগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃত্ব স্হানে যারা ছিল, তাদের সামনে আহম্মদ নূর সহ আমাকে উনার অফিসে ডেকে উপস্থিত সবার সামনে আমি সহ এম পি মহোদয় নৌকা হাতে নিয়ে আহম্মদ নূরকে বলল এবার তোমাকে নৌকা দিয়েছি, আগামীবার আমি মাহবুবকে নমিনেশন দিব। এটা ওয়াদা। আমাকে বলল যুবলীগ, ছাত্র লীগ নিয়ে তুমি জয়ের লক্ষে মাঠে নেমে যাও। আমরা সবাই আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ছাত্র লীগ ভাইদের নিয়ে স্বাধ্যমত মাঠে নেমে সবার সাথে মিলেমিশে কাজ করে নৌকাকে বিপুল ভোটে জয়ী করেছি। জয় হওয়ার পর আহম্মদ নূর একদিনের জন্য কারো সাথে সম্পর্ক রাখেনি। গত ৫ বছরেও, আওয়ামীলীগ ও জনগণের সাথে সম্পর্ক ছিল না। অথচ আমি চেয়ারম্যান না হয়েও আমার কোলাগাঁও ইউনিয়নের জনগণের পাশে ছিলাম কিনা, সেটা আপনারা ভাল জানেন। আহম্মদ নূরের পিতা যখন অসুস্থ ছিল সি আর সি আরে, আমি শুনে বন্ধু দিদার, শহিদ, কতুব সহ দেখতে যায়। ওকে সাত্বনা দিয়। তখন ও আমাকে বলল দোস্ত তোর বিরুদ্ধে আমার অবস্হান না,কিন্তু সামশু চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আমার অবস্হান। সামশু প্রার্থী হলে আমি ছাড়ব না। আমি বলছি তোর আব্বা অসুস্থ। এখন এগুলো বাদ দে। ও বলছে তুই একক প্রার্থী হলে আমি তোকে সমর্থন দিব। সামশু ভাই সহ সবাই আমাকে সমর্থন দিল। কিন্তু ও আমার বিরুদ্ধে অবস্থান করল। যাক আল্লাহ ভরর্সা। আপনারা দোয়া করবেন আমার কষ্ট সয্য করার ক্ষমতা মহান আল্লাহ যাতে আমাকে দেয়। সেই দোয়া করবেন।
আমার প্রানের কোলাগাঁও ইউনিয়নকে যে সময় দিয়েছি, সেটা আমার মনে হয় আমার পরিবারকেও দিয়নি। কোলাগাঁও ইউনিয়নকে আমার পরিবারের অংশ মনে করিছি। কোলাগাঁও ইউনিয়নের জনগনও আমাকে আপন করে নিয়েছে। সকল জনগনকে আমার কষ্ট ও ভালবাসা উৎস্বর্গ করে দিলাম। আশা করি আমার ভালবাসার মানুষ গুলো সারা জীবন আমার পাশে থাকবে। ইনশাআল্লাহ। দোয়া করবেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD