1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
দেয়াল সংস্কারেই প্রবেশমূল্য বাড়ায় কাজীর দেউরির শিশুপার্ক - DeshBarta
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পদ্মার উত্তাল ঢেউ কর্ণফুলীর তীর চট্টগ্রামেও হবিগঞ্জ বানিয়াচংয়ে পদ্মাসেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে থানা পুলিশের আনন্দ শোভাযাত্রা। পদ্মা সেতুতে প্রথম টোল দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কবিতাঃ পদ্মা সেতু -লায়ন এম এ ছালেহ্ মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও বস্ত্র বিতরণ শুভ জন্মদিন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি জিদান জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘ঝরা পালক’ মুক্তি পেল পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে চন্দনাইশ থানা পুলিশের র‍্যালি পদ্মা সেতু ও জাতীয় অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদান” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে পটিয়া শ্রমিকলীগ সভাপতি সামশুল ইসলাম’র মাক্স বিতরন

দেয়াল সংস্কারেই প্রবেশমূল্য বাড়ায় কাজীর দেউরির শিশুপার্ক

  • সময় সোমবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৪৫ পঠিত

ইসমাইল চৌধুরী

কেবল মূল প্রবেশপথ এবং দেয়ালের সৌন্দর্য বর্ধন করেই প্রবেশমূল্য বাড়ায় চট্টগ্রাম নগরের কাজির দেউরির ‘শিশুপার্ক’টি। পার্কটির ভিতরে রাইড পরিবর্তন, নতুন নতুন অত্যাধুনিক রাইড স্থাপনসহ বড় ধরণের সংস্কারের তেমন কোনো নজির চোখে পড়ছে না বলে জানিয়েছেন পার্কটিতে আসা দর্শনার্থীরা। তবে, এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পার্কের দায়িত্বরত ব্যবস্থাপক।

চট্টগ্রাম নগরীর কাজির দেউরিতে সার্কিট হাউজের পাশে অবস্থিত শিশু পার্কটি। পার্কের পাশেই পাঁচ তারকা হোটেল ‘রেডিসন ব্লু’ এবং মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত সার্কিট হাউজ। সামনে অবস্থিত এম এ আজিজ স্টোডিয়াম। সপ্তাহে সাত দিন সকাল ১০টা থেকে বিনোদনের জন্য নিজেকে খুলে রাখে পার্কটি। রাত সাড়ে ৮টায় বাজে বন্ধের ঘন্টা। তিন একর জায়গা নিয়ে বেসরকারি উদ্যোগে শিশু পার্কটি যাত্রা শুরু করে ১৯৯৪ সালে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মালিকানাধীন এক সময়ের মুক্তাঙ্গনটি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) শিশু বিনোদন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য চুক্তি সম্পাদন করে ‘ভায়া মিডিয়া বিজনেস সার্ভিসেস’ নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে।

পার্কটিতে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা জানান, ভিতরে আধুনিকতার ছোঁয়া নেই। রাইডের সংখ্যাও তেমন বাড়েনি। ফলে দর্শনার্থীর সংখ্যাও দিন দিন কমছে। ঝিমিয়ে ঝিমিয়ে চলছে পার্কটি। তবে, মাঝে মাঝে সামনের দেয়াল ও মূল প্রবেশপথ সংস্কার করেই প্রবেশমূল্য বাড়ায় পার্কটি। প্রবেশমূল্য ৫টাকা থেকে ১২গুণ বেড়ে এখন ৬০টাকা।

পার্কটি যুবক-যুবতিদের প্রেমের পরিবেশ ঠিকই ধরে রেখেছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে। শনিবার (২২ জানুয়ারী) পার্কটিতে সরেজমিনে পরিদর্শন করে এর প্রমাণ পাওয়া যায়। এসময় দুই জোড়া যুবক-যুবতীকে খুবই আপত্তিকর অবস্থায় পাওয়া যায়। কোনো নিরাপত্তারক্ষীকে টহল দিতে দেখা যায়নি।

পার্কের জেনারেল ম্যানেজারের দায়িত্বে আছেন জনাব নাসির উদ্দীন। পার্কের অভ্যন্তরে যুবক-যুবতীতের অবাধে মেলামেশার অভিযোগ সম্পর্কে জি এম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘বর্তমানে দেশের অবস্থা, মানুষের নীতিনৈতিকতা এবং চরিত্র কোন পর্যায়ে গেছে তা জানেন। আমার নিরাপত্তা প্রহরীরা সবসময় টহল দেয়। আমি নিজেও প্রায় সময় টহল দিই। কেউ বেশি ইমোশনাল হয়ে গেলে তাকে তৎক্ষনাৎ আমরা বের করে দিই। এ ব্যাপারে আমরা সবসময় সতর্ক আছি’।

জেনারেল ম্যানেজার বলেন, ‘করোনা মহামারীরূপে কারণে পার্কে দর্শনার্থী কমে গেছে। আমরা প্রচুর ক্ষতির সম্মুখীন। দর্শনার্থী আকর্ষণের জন্য পার্কের আধুনিকায়ন চলছে, আগামীতেও চলবে। এখনো অনেক রাইড বসানোর অপেক্ষায় আছে। আরো কিছু রাইড আসার পথে। তবে পার্কের পাশে সার্কিট হাউজ থাকায় আমরা কোনো ধরণের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পারিনা। ওখানে সবসময় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা থাকেন’।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD