1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
বনজ সম্পদ ধ্বংস কারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। - বন-উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার - DeshBarta
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাউজানে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা সপ্তাহ ‘২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বন‍্যাদুর্গতদের মাঝে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের ত্রাণ বিতরণ মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত কাতার প্রবাসী। চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির জরুরী সভায় আবুল হাশেম বক্কর। দুমকিতে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও আনন্দ মিছিল ২১ খালের ও ১১ প্রকল্প নিয়ে চসিক মেয়রের মন্তব্য। নেত্রকোণা জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে খালিয়াজুরীতে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চন্দনাইশে ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বীজ-সার বিতরণ চন্দনাইশে মাদকের অপব্যবহার ও পাচাররোধে র‌্যালী-আলোচনা সভা উগ্রবাদ প্রতিহতে নাগরিকদের সচেতনতা বৃদ্ধিকরণে নাগরিক প্রশিক্ষণ

বনজ সম্পদ ধ্বংস কারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। — বন-উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার

  • সময় বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২
  • ৩৩ পঠিত

জেপুলিয়ান দত্ত জেপু,কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ

বন ধ্বংসের জন্য যারা প্রতিনিয়ত বনজ সম্পদ লুঠপাট করে নিজের পকেট ভারী করে, এমন ব্যক্তিদের তালিকা তৈরি করুন। তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন। বন রক্ষায় আরো কঠোর হোন।বনজ সম্পদ রক্ষার ক্ষেত্রে সকলে আন্তরিক হওয়া দরকার। কেননা সবুজ বনায়ন কারো ব্যক্তিগত সম্পদ নয়। এটি জাতীয় সম্পদ। জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষেত্রে গাছগাছালিতে ভরা সবুজ বন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। একটি দেশে ২৫ ভাগ বনভূমি থাকা প্রয়োজন। কিন্তু এখন তা নেই। না থাকার প্রধান কারণ হল স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বন বিভাগের স্বার্থান্বেষী কিছু ব্যক্তির দখল ও পকেট ভারী করার জন্য আজ বনভূমি ধ্বংসের দিকে পতিত হচ্ছে।
সোমবার (১৪ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে মেদাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান অফিস চত্বরে আয়োজিত মেদাকচ্ছপিয়া ও ফুলছড়িসহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যেদের সাথে মত বিনিময় সভায় পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চকরিয়া-পেকুয়া আসনের এমপি আলহাজ্ব জাফর আলম বলেন,বনের ভিতরে গড়ে উঠা ইটভাটা,বালু মহাল,জবর-দখল সবকিছু উচ্ছেদ করা হোক। বন সম্পদ খাবে একজন, আর বন কর্মকর্তারা মামলা দিবে আরেকজনকে,এটি বন্ধ করুন। প্রকৃত অপরাধীকে চিহৃিত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন,না হয় বন অধিদপ্তরের সুনাম বিনষ্ট হবে। তাছাড়া বালু মহাল ইজারায় সরকার যতটা রাজস্ব পায় তার চেয়ে একশত গুণ বেশি ক্ষতি হচ্ছে। বালু মহাল ইজারা
চট্টগ্রাম অঞ্চলের বন সংরক্ষক বিপুল কৃষ্ণ দাসের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন,প্রধান বন সংরক্ষক মোঃ আমীর হোসাইন চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোঃ আবু সুফিয়ান, নেচার কনজারভেশন ম্যানেজমেন্ট (নেকম) এর সিনিয়র ডিরেক্টর রাশিদুজ্জামান আহমদ।
উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগীয় কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সরকার।তিনি বলেন,
১৯৫১ সালে গড়ে উঠা বন এখনো সবুজ সমারোহে দৃশ্যমান।এছাড়া জবর দখল প্রবনতা প্রতিযোগিতা মূলক।তবু বন রক্ষায় আমরা বদ্ধপরিকর।কোন অপরাধীকে ছাড় নয়।বন সম্পদ রক্ষায় অনেকের প্রাণ ঝরেছে।সুতরাং বন রক্ষায় সকলই আন্তরিক হোন,সহযোগিতা করুণ।
স্থানীয়দের পক্ষে মত-বিনিময় প্রদান বক্তব্যে খুটাখালী ইউপির চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রহমান ও মেদাকচ্ছপিয়া সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি জয়নাল আবেদীন বলেন,মেদাকচ্ছপিয়া বনের কিছু অংশ ন্যাশনাল পার্কের আওতায় অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে।ন্যাশনাল পার্কের কোন কার্যক্রম বাস্তবায়ন না হওয়ায়,ন্যাশনাল পার্ক কি? তা আমরা কেউ জানি না।নাম মাত্র শুনে এসেছি।ফলে পার্ক বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা হোক।
ডুলাহাজারা ইউপির চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম আদর বলেন,বনো হাতির আক্রমণে মোঃ আলী নামের এক যুবক নিহত হয়েছে।সুতরাং বন থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন,জবর দখল ও বন সম্পদ গ্রাসকারী বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে আহবান জানান।
ফাঁসিয়াখালী ইউপির চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন হেলালী বলেন,সরকার দলের নেতা পরিচয়ে যারা বন ধ্বংস করে,ইটভাটা,বালু উত্তোলন,গাছ কর্তন,বনভূমি জবর-দখল প্রতিরোধে বনবিভাগকে আরো কঠোর হতে হয়ে,বন সম্পদ রক্ষার অনুরোধ জানান।
ফাঁসিয়াখালী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী বলেন,বন সম্পদ রক্ষায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের বৈষম্য র্দূবিত হোক।বনে থাকা সকল প্রকার অবৈধতা উচ্ছেদে আন্তরিক হওয়ার অনুরোধ জানান।
অনুষ্ঠিতব্য মত-বিনিময় সভায় কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগীয় কর্মকর্তা মোঃ সারওয়ার আলম, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান, ফুলছড়ি রেঞ্জ অফিসার ফারুক আহমদ বাবুল, ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান সহ দুই রেঞ্জের সকল বিটকর্মকর্তা,স্টাফ,সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD