1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
দিন দুপুরে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি - DeshBarta
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
চন্দনাইশে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা ফুটবল গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট ফাইনাল সম্পন্ন জননেতা মরহুম জহুর আহমেদ চৌধুরী ইতিহাসের অংশ – তসলিম উদ্দিন রানা এশিয়ান আবাসিক স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্টে কর্ণফুলী দল চ্যাম্পিয়ন পটিয়ায় নবাগত ইউনও’র সাথে খলিলুর রহমান মহিলা ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের শুভেচ্ছা বিনিময়। চট্টগ্রাম ফয়েসলেকে উদ্বোধন হলো সেলুন পাঠাগার বিশ্বজুড়ে চন্দনাইশে আহমদ ছফার জন্মদিন পালন জোবায়েত হাসান পটিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনোনীত রাউজানে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা সপ্তাহ ‘২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বন‍্যাদুর্গতদের মাঝে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের ত্রাণ বিতরণ মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত কাতার প্রবাসী।

দিন দুপুরে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি

  • সময় মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩১ পঠিত

বোয়ালখালী প্রতিনিধি:-

বোয়ালখালী উপজেলা সদরে রাস্তায় ঘুরছে বিশালদেহী হাতি। পিঠে বসা মালিক। মালিকের নির্দেশেই এক দোকান থেকে আরেক দোকানে যাচ্ছে হাতিটি। তারপর শুঁড় সোজা এগিয়ে দিচ্ছে দোকানির কাছে। শুঁড়ের মাথায় টাকা গুঁজে না দেওয়া পর্যন্ত শুঁড় সরাচ্ছে না হাতিটি। এভাবেই অভিনব কৌঁশলে রমজানের ঈদকে সামনে রেখে হাতি দিয়ে চলছে চাঁদাবাজি। এতে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায় কেউ ভয়ে কেউ বা আবার খুশিতে দিচ্ছে টাকা। সর্বনিন্ম ১০ টাকা থেকে শুরু করে দোকানের ধরণ অনুযায়ী একশ টাকা পর্যন্ত নেওয়া হচ্ছে চাঁদা। শুধু দোকান নয় সড়কে চলাচলকারী পথচারীদের থেকে টাকা তুলতে দেখা যায় এই হাতিকে। এতে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয় উপজেলায়।

খাজা সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী রাজীব বলেন, ‘টাকা না দিলে যাবে না। এগুলো চাঁদাবাজি শহরে প্রশাসনের তাড়া খেয়ে এখন বোয়ালখালীতে প্রবেশ করছে। এদিকে পৌরসভার কয়েকজন কর্মচারী ছবি তুললেও তারা এবিষয়ে কোনো সর্তক করছেন বলে অভিযোগ তার।’

সবাই খুশি হয়ে কিছু টাকা দেয় কাউকে জোর করি না এমনটাই বললেন হাতির মালিক। তিনি আরো বলেন, ‘আমরা গরীব মানুষ। দু’চার টাকা তুলে নিজের ও হাতির ভরণপোষণ করি।

উপজেলার সদরের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা জানান, মাঝে মধ্যেই বিভিন্ন এলাকা থেকে হাতি নিয়ে এসে চাঁদা আদায় করা হয়। বিষয়টি দেখার কেউ নেই। প্রতিটি দোকান থেকে হাতি দিয়ে টাকা তোলা হয়। টাকা না দেওয়া পর্যন্ত দোকান থেকে হাতি সরানো হয় না। অনেক সময় মহিলা ক্রেতারা হাতি দেখে ভয় পান। এতে ব্যবসায়ের ক্ষতি হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘হাতির কারণে অনেক সময় যানজটের সৃষ্টি হয়। দোকান থেকে চাঁদা না পাওয়া পর্যন্ত রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকে হাতি। এতে চলন্ত গাড়ি থামিয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়।’

বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল করিম বলেন, ‘হাতি দিয়ে টাকা তোলার বিষয়ে এখনো কেউ আমাদের কিছু জানায়নি। তবে প্রতিবেদক থেকে খবর পেয়ে মোবাইল টিম পাঠিয়ে তড়িৎ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন তিনি।’

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD