1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
ইন্দুরকানীতে বাঙ্গির বাম্পার ফলন দামপেয়ে চাষিরা খুশি - DeshBarta
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
চন্দনাইশে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা ফুটবল গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট ফাইনাল সম্পন্ন জননেতা মরহুম জহুর আহমেদ চৌধুরী ইতিহাসের অংশ – তসলিম উদ্দিন রানা এশিয়ান আবাসিক স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্টে কর্ণফুলী দল চ্যাম্পিয়ন পটিয়ায় নবাগত ইউনও’র সাথে খলিলুর রহমান মহিলা ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের শুভেচ্ছা বিনিময়। চট্টগ্রাম ফয়েসলেকে উদ্বোধন হলো সেলুন পাঠাগার বিশ্বজুড়ে চন্দনাইশে আহমদ ছফার জন্মদিন পালন জোবায়েত হাসান পটিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনোনীত রাউজানে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা সপ্তাহ ‘২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বন‍্যাদুর্গতদের মাঝে বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের ত্রাণ বিতরণ মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত কাতার প্রবাসী।

ইন্দুরকানীতে বাঙ্গির বাম্পার ফলন দামপেয়ে চাষিরা খুশি

  • সময় রবিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ৪১ পঠিত

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) থেকে কামরুল ইসলামঃ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ৪০ হেক্টর জমিতে তরমুজ ও বাঙ্গির চাষ করা হয়েছে। বাজারে এ ফলের দামও ভালো। গত বছর হতাশ হলেও এ বছর খুশি চাষিরা। রমজান মাসকে সামনে রেখে সারাদেশের মত ইন্দুরকানীতেও এ ফলের চাষ করা হয়। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাঠানো হয় এই ফল।
উপজেলার প্রধান বাঙ্গির বাজার ইন্দুরকানী, ঘোষেরহাট, পত্তাশী, বালিপারা, চন্ডিপুর বাজার ঘুরে দেখা যায় সকাল থেকেই চাষীরা বাঙ্গি ও তরমুজ নিয়ে বাজারে হাজির হয়। দেশের বিভিন্ন পাইকারি ব্যবসায়ী এখান থেকে হাজার হাজার টাকার বাঙ্গি ও তরমুজ কিনে নেয়। স্থানীয় চাষী খোকন হাওলাদার বলেন, ১বিঘা জমিতে বাঙ্গি ও তরমুজ চাষে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা খরচ হয়।
এ বছর ১ বিঘা জমিতে ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকার বাঙ্গি বিক্রি হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, বাঙ্গি তোলার পর সেই জমিতে ধান চাষ করা যায়। একই জমিতে দুই ধরনের ফসল চাষ করায় আমাদের অনেক লাভ হয়। বালিপারা গ্রামের বাঙ্গি চাষি বাবুল বলেন, আমি ৭৮ শতাংশ জমিতে ২৫ হাজার টাকা খরচ করে বাঙ্গি চাষ করেছি, আশা করছি ১ লাখ টাকা বিক্রি করবো।
পত্তাশী বাজারের বাঙ্গি চাষি সামাদ আলী বলেন, আমি প্রতি বছর অল্প জমিতে বাঙ্গি চাষ করে তা স্থানীয় বাজারে বিক্রি করি। প্রতিটি বাঙ্গি ৫০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি করছি। ঢাকা থেকে আসা পাইকারী ব্যবসায়ী রতন বলেন, প্রতি রোজায় এখান থেকে তরমুজ ও বাঙ্গি কিনতে আসি। ১০০ বাঙ্গি ৪ থেকে ৫ হাজার টাকায় ও প্রতি পিচ তরমুজ ১৩০ থেকে ২১০ টাকায় কিনি।
ইন্দুরকানী উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, এ উপজেলায় ৪০ হেক্টর জমিতে বাঙ্গি ও তরমুজ চাষ করা হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর দাম ভালো পাওয়ায় খুশি চাষিরা।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD