1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
আল-আকসা মসজিদে ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষ - DeshBarta
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পদ্মার উত্তাল ঢেউ কর্ণফুলীর তীর চট্টগ্রামেও হবিগঞ্জ বানিয়াচংয়ে পদ্মাসেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে থানা পুলিশের আনন্দ শোভাযাত্রা। পদ্মা সেতুতে প্রথম টোল দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কবিতাঃ পদ্মা সেতু -লায়ন এম এ ছালেহ্ মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও বস্ত্র বিতরণ শুভ জন্মদিন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি জিদান জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘ঝরা পালক’ মুক্তি পেল পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে চন্দনাইশ থানা পুলিশের র‍্যালি পদ্মা সেতু ও জাতীয় অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদান” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে পটিয়া শ্রমিকলীগ সভাপতি সামশুল ইসলাম’র মাক্স বিতরন

আল-আকসা মসজিদে ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষ

  • সময় সোমবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৯ পঠিত

[আন্তর্জাতিক ডেক্স নিউজ]

জেরুসালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) ভোরে ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের সংঘর্ষ হয়েছে। ফজরের নামাজের জন্য ফিলিস্তিনিরা আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে জড়ো হলে সংঘর্ষ শুরু হয়। ইসরায়েলি বাহিনী কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছে এবং লাঠিচার্জও করেছে। ইসরায়েলি বাহিনীর দাবি, স্থানীয় সময় ভোর ৪টা নাগাদ মসজিদ এলাকায় প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশন (পিএলও) এবং হামাসের পতাকা নিয়ে এসেছিলেন বেশ কয়েকজন যুবক। খবর পেয়ে সেই যুবকদের গ্রেপ্তার করতেই মসজিদ এলাকায় পৌঁছে পুলিশ। কিন্তু সেই সময় মসজিদে নামাজ চলছিল। ফলে প্রার্থনা শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করছিল ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েলি বাহিনীর আরো দাবি, আল-আকসা মসজিদে আসা মুসল্লিদের ঢাল বানিয়ে তাদের ভিড়ে মিশে গেছে ফিলিস্তিনি যুবকরা। পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর, আগুন নিয়ে হামলা চালায় ওই যুবকরা। ফলে মসজিদের মধ্যে একটা আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়। এ ঘটনায় ৫৯ জন ফিলিস্তিনি জখম হয়েছেন।

ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ঘটনা প্রসঙ্গে এক বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে,আল-আকসা মসজিদকে অপবিত্র করতে মুখোশধারী বেশ কিছু ব্যক্তি পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথরবোমা ছোড়ে। তবে পুলিশ মসজিদে ঢুকে হামলা চালিয়েছে বলে যে দাবি করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। কারণ, পুলিশ মসজিদের ভেতরে প্রবেশ করেছে পাথর বের করার জন্য। যদিও পুলিশের দাবি, তারা নামাজ শেষ হওয়ার অপেক্ষা করছিল; ভেতরে প্রবেশই করেনি। অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওগুলোতে দেখা যায়, ফিলিস্তিনিরা পাথর নিক্ষেপ করছে এবং ইসরায়েলি বাহিনী কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করছে। ফিলিস্তিনের রেড ক্রিসেন্ট বলেছে, তারা বেশ কয়েকজন আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেছে। ঘটনাস্থলের একজন প্রহরীর চোখে রাবার বুলেট লেগেছে। হামাস এই ঘটনায় ইসরায়েলি বাহিনীর নিন্দা করে বলেছে ঘটনার জন্য ইসরায়েল দায়ী। সূত্র : গার্ডিয়ান।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD