1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
পেকুয়ায় শ্রমিকদের টাকা ফেরত ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন - DeshBarta
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৭:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
চকরিয়ায় উত্তর পশ্চিম বরইতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিচালনা কমিটি গঠিত ফটিকছড়িতে দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত আনোয়ারা যুবদলের উদ্যোগে বেগম জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় মাদার তেরাসা পদক পেলেন এস এম পিন্টু বঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে হতদরিদ্র মেয়ের বিবাহের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান। চট্টগ্রাম নগরীতে ভেজাল সয়াবিন তৈল বোতলজাত করন। ১ ব্যবসায়ী গ্রেফতার। কক্সবাজারে চলন্ত বাসে রোহিঙ্গা তরুণী ধর্ষণ চেষ্টা মামলার ২ আসামী গ্রেফতার। চরখিজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি অনুমোদন হবিগঞ্জের বানিয়াচং থানা পুলিশের অভিযানে ৮কেজি গাঁজাসহ মহিলা ব্যাবসায়ী গ্রেফতার। নেত্রকোণা ৪ বন্যার্তদের পাশে আওয়ামীলীগ নেতা জনাব শফি আহম্মদ

পেকুয়ায় শ্রমিকদের টাকা ফেরত ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

  • সময় শনিবার, ৭ মে, ২০২২
  • ২২ পঠিত

চকরিয়া(কক্সবাজার)প্রতিনিধি ঃ

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নে কর্মসৃজন প্রকল্পের শ্রমিকদের কাছ থেকে জোর করে হাতিয়ে নেওয়া টাকা ফেরত, সংশ্লিষ্টদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার সময়ে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড মোরার পাড়া-বলির পাড়া আবাসন প্রকল্পের সামনে এই সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে কর্মসৃজন প্রকল্পের কয়েকশত হতদরিদ্র শ্রমিক ও এলাকাবাসি অংশ নেন।

শ্রমিকরা অভিযোগ করেছেন, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের ইউপি সদস্যরা ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তাকে দেওয়ার কথা বলে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে কর্মসৃজন প্রকল্পের শ্রমিকদের মোবাইল একাউন্টে দেওয়া সিংহভাগ টাকা জোর করে নিয়ে গেছে। যারা টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন তাদেরকে নানা হুমকি ধামকি দিয়েছেন। এমন কি যারা টাকা দেয়নি তাদেরকে কর্মসৃজন প্রকল্পের তালিকা থেকেও বাদ দিবেন বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, যারা টাকা দেয়নি তাদের থেকে জোর করে দ্বিগুন টাকা আদায় করে নিবেন বলেও শাসিয়েছেন। মানববন্ধনে ও সমাবেশে শ্রমিকরা দাবী করেছেন, টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য, তাদের মাঝি, চেয়ারম্যান ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার পরস্পর যোগসাজশ রয়েছে।

পেকুয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিস সুত্রে জানা যায়; গত ঈদের আগে ২৭ এপ্রিল কর্মসৃজন প্রকল্পের অধীনে নিয়োজিত ৯৩২জন শ্রমিকের মোবাইল একাউন্টে সব টাকা একত্রে পাঠানো হয়েছে। কাজ অনুযায়ী কোন কোন শ্রমিকের মোবাইলে ২০ হাজার, কোন কোন শ্রমিকের মোবাইলে ১৭ হাজার ২শত টাকা পাঠানো হয়েছে। অনেকের মোবাইলে পাঠানো টাকা একটু কম বেশী হবে। ওই টাকা শ্রমিকদের মোবাইলে যাওয়ার পর থেকে ইউপি সদস্যরা কাজে অনুপস্থিতির অজুহাত তুলে শ্রমিকদের ঘরে ঘরে গিয়ে প্রায় ৪শতাধিক শ্রমিকের কাছ থেকে সিংহভাগ টাকা এভাবে হাতিয়ে নিয়েছেন।

পেকুয়া সদর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ শাহেদুল ইসলাম ও তার মাঝি দিদার একই ওয়ার্ডের মোরার পাড়ার শ্রমিক নাছির উদ্দিনের কাছ থেকে মোবাইল ফোনে ১৩ হাজার টাকাই দাবী করেছেন। মোবাইল ফোনে নাছির উদ্দিন বলেছেন সরকার আমাকে টাকা দিয়েছে আমি সেই টাকা আপনাদের দেব কেন ? তিনি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ইউপি সদস্য ও তার মাঝি দিদার সরকারের উদ্দেশ্যে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেছে। এমনকি তার কাছ থেকে জোর করে ৩৫ হাজার কিভাবে আদায় করতে হয় তা তারা জানে বলেও হুমকি দিয়েছেন। ইউপি সদস্য শাহেদুল ইসলাম ও শ্রমিক নাছির উদ্দিনের মোবাইল ফোনে কথোপকথনের অডিও রেকর্ডটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। মানববন্ধন ও সমাবেশে শ্রমিকেরা বলেছেন তাদের কাছ থেকে জোর করে নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়া না হলে তারা পরবর্তীতে অন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণা করবেন।এ কারনে ইউপি সদস্য শাহেদুল ইসলাম জনাত্রিশ লোক ভাড়া করে ঈদে আগের দিন টাকা নেয়নি বলে মানববন্ধন করতে চাইলে পুলিশ তা পন্ড করে দেয়।

বৃহস্পতিবার শ্রমিকদের মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ জাকারিয়া, ৮নং ওয়ার্ড় আওয়ামীলীগ নেতা মোজাম্মেল হক, নাছির উদ্দিন, ওসমান গনি, গিয়াস উদ্দিন, আলী আজম, মোহাম্মদ রাশেল, জাহাঙ্গীর, ইলিয়াছ, তাফসির, করিম, শাহ আলম, আবদুল হামিদ, মোহাম্মদ মিয়া, হেলাল উদ্দিন প্রমুখ। এ ব্যাপারে জানার জন্য পেকুয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে বারবার কল করলেও তিনি কল রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD