1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
লোহাগাড়ায় হীরা রাণী দে'র রহস্যজনক মৃত্যু! পরিবারের দাবী পরিকল্পিত হত্যা - DeshBarta
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও বস্ত্র বিতরণ শুভ জন্মদিন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি জিদান জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘ঝরা পালক’ মুক্তি পেল পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে চন্দনাইশ থানা পুলিশের র‍্যালি পদ্মা সেতু ও জাতীয় অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদান” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে পটিয়া শ্রমিকলীগ সভাপতি সামশুল ইসলাম’র মাক্স বিতরন চকরিয়ায় উত্তর পশ্চিম বরইতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিচালনা কমিটি গঠিত ফটিকছড়িতে দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত আনোয়ারা যুবদলের উদ্যোগে বেগম জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় মাদার তেরাসা পদক পেলেন এস এম পিন্টু

লোহাগাড়ায় হীরা রাণী দে’র রহস্যজনক মৃত্যু! পরিবারের দাবী পরিকল্পিত হত্যা

  • সময় বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
  • ২৭ পঠিত

জেপুলিয়ান দত্ত জেপু,চকরিয়াঃ

লোহাগাড়ায় এক সন্তানের জননী হীরা রানী দে (২২) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।
তবে নিহতের পিতার দাবী তার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।
নিহত হীরা রানী দে উপজেলার আমিরাবাদ সুখছড়ি উত্তর হিন্দুপাড়া প্রকাশ রাখাল মহাজন পাড়ার সুমন কান্তি দাশের স্ত্রী।

গত ৬ জুন (সোমবার) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত ৪ বছর পুর্বে চকরিয়া বরইতলী ২নং ওয়ার্ডস্থ হিন্দু পাড়ার হীরা রাণী দে`র সাথে আমিরাবাদ সুখছড়ি উত্তর হিন্দু পাড়ার সুমন কান্তি দাশের ধর্মীয়বিধি মোতাবেক পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। তাদের ঘরে ৩ বছরের এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সবসময় ঝগড়াঝাঁটি লেগেই থাকতো। তবে ৬ই জুন ( সোমবার) সকালে হীরা হঠাৎ কিভাবে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়েছে সে ব্যাপারে সঠিকভাবে কেউ কিছু জানাতে পারেনি। নিহতের পিতা ভানু কান্তি দে জানায়, বিয়ের পর থেকে মেয়ের জামাতা সুমন যৌতুকের টাকার জন্য আমার মেয়ের সাথে প্রায় ঝগড়াঝাঁটি করতো। মেয়েকে সুখে রাখতে এই পর্যন্ত তিনধাপে ৫০ হাজার টাকা করে দেড়লক্ষ টাকা দিয়েছি।

গত কিছুদিন থেকে সে ব্যবসা করার জন্য টাকা লাগবে বলে আমার মেয়েকে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালাতে থাকে। ঘটনার আগেরদিন রাতেও সে আমার মেয়েকে মারধর করেছে। সকালে স্থানীয় এলাকাবাসী আমাদের কে খবর দিলে আমরা এসে মেয়ের লাশ দেখতে পাই। এলাকার মানুষ আমার মেয়ের লাশটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সুমন বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট দিয়ে আমার মেয়েকে হত্যা করেছে বলে দাবি করেন নিহতের পিতা ভানু দে। তিনি আমার মেয়ে হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই বলে কন্নায় ভেঙে পড়েন।

ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন লোহাগাড়া থানার এসআই রুহুল আমিন। এসময় নিহতের স্বামী সুমন দাশকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা যায়।

এসআই রুহুল আমিন বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনপূর্বক লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন করা হয়েছে । লাশের বাম হাতে বৈদ্যুতিক শর্টের চিহৃ রয়েছে এবং মাথায় ফুলা জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে । ঘটনার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী সুমন দাশকে থানা হেফাজতে আনা হয়েছে।

প্রাথমিক ভাবে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পোস্ট মডেম রিপোর্টের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD