1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
এনজিওগ্রামে ৩টি ব্লক পাওয়া গেছে বেগম খালেদা জিয়ার - DeshBarta
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পদ্মার উত্তাল ঢেউ কর্ণফুলীর তীর চট্টগ্রামেও হবিগঞ্জ বানিয়াচংয়ে পদ্মাসেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে থানা পুলিশের আনন্দ শোভাযাত্রা। পদ্মা সেতুতে প্রথম টোল দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কবিতাঃ পদ্মা সেতু -লায়ন এম এ ছালেহ্ মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ ও বস্ত্র বিতরণ শুভ জন্মদিন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি জিদান জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘ঝরা পালক’ মুক্তি পেল পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে চন্দনাইশ থানা পুলিশের র‍্যালি পদ্মা সেতু ও জাতীয় অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদান” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে পটিয়া শ্রমিকলীগ সভাপতি সামশুল ইসলাম’র মাক্স বিতরন

এনজিওগ্রামে ৩টি ব্লক পাওয়া গেছে বেগম খালেদা জিয়ার

  • সময় শনিবার, ১১ জুন, ২০২২
  • ২০ পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে এনজিওগ্রামের ৩টি ব্লক ধরা পড়েছে। লাইভ সেভিংয়ের জন্য জরুরী ভিত্তিতে একটি ব্লকে রিং পরানোর মাধ্যমে রক্ত চলাচল সচল করা হয়েছে। লিভারে জটিলতা ও কিডনির পরিস্থিতি বিবেচনায় অপর দু’টি ব্লকে তাৎক্ষণিক রিং পরানো সম্ভব নয় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা।

বেগম খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিমের অন্যতম সদস্য ডা এ জেড এম জাহিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গতরাতে (১০ জুন দিবাগত) হঠাৎ করেই বুকে ব্যথা অনুভব করলে সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার শারীরিক বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয় তাঁকে। পরীক্ষা নিরীক্ষার পর মেডিকেল টিমের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এনজিওগ্রাম করা হয়। এতে দেখা যায় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর হার্টে ৩টি ব্লক রয়েছে। তাৎক্ষনিক একটি ব্লকে রিং পরানো হলেও বাকী দু’টিতে সম্ভব হয়নি।
ডা.জাহিদ জানান, তাঁর শারীরিক অবস্থা এখনো পুরোপুরি আশঙ্কমুক্ত নয়।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বছরের ১৩ নভেম্বর গুলশানের বাসায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে বেগম খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। তখন লিভারে জটিলতা ধরে পড়ে। ওই সময় তাঁকে বিদেশে নিয়ে আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য সুপারিশ করেছিলেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা। কিন্তু সরকার কোন অবস্থাতেই বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি দেয়নি। এতে এভারকেয়ার হাসপাতালে রেখেই তাঁর শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার রিপোর্ট বিদেশে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের কাছে পাঠিয়ে জরুরী পরামর্শ নেওয়া হয়েছিল। টানা ৮১ দিন এভারকেয়ারে রেখে তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল তখন। বাসায় ফিরেছিলেন চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD