1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. salehbinmonir@gmail.com : News Editor : News Editor
অভিযানের কথা শুনে পালালো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দুই মালিক - DeshBarta
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
দাকোপের বিভিন্ন জলাশয়ে মাছের পোনা অবমুক্তিকরণ চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা মাহামুদুর রহমান চৌধুরী নয়নের নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন চন্দনাইশে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উদযাপন করেছেন বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ গৃহহীনকে ঘর করে দিলেন যুবলীগ নেতা পুলিশ ও পল্লী বিদ‍্যুৎ এর কর্মকর্তারা অভিযান চালিয়ে মোট ১২ টি ট্রান্সফর্মার উদ্ধার  বৃক্ষ পরিচর্যার সচেতনতা বৃদ্ধিতে দূর্বার তারুণ্য”র ‘আমরা মালি’ মাটিরাঙ্গায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উদযাপন ১০ বিভাগীয় শহরে গণ-সমাবেশের ঘোষণা বিএনপির চকরিয়ায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আত্মপ্রত্যয়ী’র দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

অভিযানের কথা শুনে পালালো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দুই মালিক

  • সময় বুধবার, ৩১ আগস্ট, ২০২২
  • ২৩ পঠিত

ইসমাইল চৌধুরী

অভিযানের কথা শুনে চট্টগ্রাম নগরীর মোহরা এলাকার ওমেগা হেলথ কেয়ার এন্ড ডায়াবেটিস সেন্টার এবং সিটি ল্যাব অ্যান্ড ডায়াবেটিস সেন্টার নামে ২টি প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যান মালিকসহ কর্মচারীরা।

বুধবার (৩১ আগস্ট) জেলা সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে একটি দল নগরের মোহরা এলাকায় বিভিন্ন হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিদর্শন করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

একইদিন নানা অনিয়মের অভিযোগে চট্টগ্রাম নগরের ৫ হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াছ চৌধুরী।

বন্ধ রাখা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- বনি হাসান চক্ষু হাসপাতাল অ্যান্ড হেলথ সেন্টার, ফেয়ার লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ওমেগা হেলথ কেয়ার ও ডায়াবেটিস সেন্টার, মোহরা ল্যাব ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও সিটি ল্যাব অ্যান্ড ডায়বেটিস সেন্টার।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার চান্দগাঁও ও মোহরা এলাকার ৯টি হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিদর্শন করেন সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে একটি টিম।

এ সময় বনি হাসান চক্ষু হাসপাতাল অ্যান্ড হেলথ সেন্টার নামে একটি প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ডিপ্লোমা নার্স না থাকাসহ বিভিন্ন নানা অনিয়ম পাওয়া যায়। এ ছাড়া ফেয়ার লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও মোহরা ল্যাব ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এক্স-রে কক্ষে লিড শিট না থাকা, প্যাথলজি নোংরা ও অপরিচ্ছন্ন এবং প্রতিষ্ঠানটির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিল না।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, ৫টি প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের অনিয়ম পাওয়া যায়।

তাই ওই প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য বলা হয়েছে। তাদের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর বরাবর চিঠি দেওয়া হবে। সেখান থেকে যে সিদ্ধান্ত আসে তা বাস্তবায়ন করা হবে। এ সময় তিনি অবৈধ হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

নগর ছাড়াও চট্টগ্রামের ১৪ উপজেলায় হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালানো হয়। এতে লোহাগাড়ায় একটি হাসপাতালে অনিয়ম পাওয়ায় বন্ধ করে দেয় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশ বার্তা
Theme Customized By TeqmoBD